সর্বশেষ সংবাদ
ফেঞ্চুগঞ্জ ইউনিয়ন ছাত্রদলের কমিটি : ঘোষণা উপজেলার, বাতিল জেলার  » «   ক্রীড়া সংগঠক আব্দুল কাদিরের মায়ের ইন্তেকাল  » «   রণবীর-দীপিকা বিয়ে নভেম্বরে?  » «   যাদুকর ম্যারাডোনার পায়ের অবস্থা করুণ  » «   একটু আগেবাগেই শীতের আগমণ  » «   চট্টগ্রামে আইয়ুব বাচ্চুর জানাযা বাদ আছর  » «   রাবণ পোড়ানো দর্শনকারী ভিড়ের উপর দিয়ে ছুটে গেলো ট্রেন : নিহত ৬০  » «   গোলাপঞ্জে ফায়ার সার্ভিস ও সিভিল ডিফেন্স স্টেশন উদ্বোধন করলেন শিক্ষামন্ত্রী  » «   বিসর্জনের দিন সিলেটে আসনে ‘দেবী’  » «   বিভিন্ন পূজা মণ্ডপ পরিদর্শনে মেয়র আরিফ  » «   সিলেটে স্বয়ংক্রিয় কৃষি-আবহাওয়া স্টেশন স্থাপিত  » «   শীতে ত্বক সজীব রাখতে শাক-সবজি খান  » «   সিলেট ওসমানী বিমানবন্দর সংস্কার হচ্ছে প্রায় ৪ কোটি টাকা ব্যয়ে  » «   কোম্পানীগঞ্জে টাস্কফোর্সের অভিযানে পেলোডার মেশিন জব্দ  » «   ডিজিটাল নিরাপত্তা আইন সংশোধনে সরকারকে নোটিশ  » «  

ইরানে ভূমিকম্পে নিহতের সংখ্যা ৩০০ ছাড়িয়েছে



8প্রান্ত ডেস্ক: ইরান ও ইরাক সীমান্তে শক্তিশালী ৭ দশমিক ৩ মাত্রার ভূমিকম্পের আঘাতে নিহতের সংখ্যা বেড়ে ৩৪২ জনে দাঁড়িয়েছে। রোববার আঘাত হানা এ ভূমিকম্পে অন্তত আড়াই হাজার মানুষ আহত হয়েছেন বলে কাতার ভিত্তিক সংবাদমাধ্যম আল জাজিরা জানিয়েছে। নিহতের সংখ্যা আরও বাড়তে পারে বলেও জানিয়েছে দু’দেশের স্থানীয় সংবাদমাধ্যম। মার্কিন ভূতাত্ত্বিক জরিপ সংস্থা ইউএসজিএস জানায়, ভূমিকম্পটির উৎপত্তিস্থল ছিল ইরাকের উত্তরাঞ্চলীয় কুর্দি অধ্যুষিত সুলায়মানিয়ায়। গভীরতা ছিল ৩৩ দশমিক ৯ কিলোমিটার।

দেশ দুটির সরকারি গণমাধ্যমের বরাত দিয়ে বার্তা সংস্থা রয়টার্স জানিয়েছে, ধসে পড়া ভবনের নিচে আটকা পড়াদের উদ্ধারে ব্যাপক তৎপরতা চালাচ্ছে কর্তৃপক্ষ। আহতদের জন্য হাসপাতালে স্থান শংকট দেখা দিয়েছে বলেও বার্তা সংস্থাটি জানিয়েছে। ইরানের সংবাদমাধ্যম আইএসএনএ জানিয়েছে, ইরাক সীমান্তবর্তী কারমানশাহ্‌ প্রদেশে প্রচুর হতাহতের ঘটনা ঘটেছে। তবে হতাহতদের বেশিরভাগ শারপল ই জাহাব এলাকার বলে প্রদেশের উপ-গভর্নর মোস্তবা নিকারদার দেশটির রাষ্ট্রীয় টেলিভিশনকে জানিয়েছেন।

ইরানের সর্বোচ্চ নেতা আয়াতুল্লাহ খোমেনী উদ্ধারকাজে সর্বোচ্চ উদ্যোগের নির্দেশ দিয়েছেন। সেনাবাহিনীকেও দুর্গত এলাকায় কাজ করতে বলা হয়েছে। এদিকে ইরাকের কুর্দিস্তানের স্বাস্থ্য বিভাগ বলছে, সেখানেও প্রচুর মানুষ হতাহত হয়েছেন। ইরাকি কর্তৃপক্ষ বলেছে, সুলায়মানিয়াহ্‌ ছাড়াও কুর্দিস্তানের দারবাদিখান শহরে সবচেয়ে বেশি ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে। কুর্দিস্তানের স্বাস্থ্যমন্ত্রী রেকাওয়াত হামা রাশীদ ব্রিটিশ বার্তা সংস্থা রয়টার্সকে জানিয়েছেন, ওই শহরের পরিস্থিতি খুবই ভয়াবহ।

অন্যদিকে, তুরস্কের দিয়ারবাকির শহরেও ভূমিকম্প অনুভূত হয়েছে বলে সেখানকার বাসিন্দারা জানিয়েছেন। তবে তাৎক্ষণিকভাবে সেখানকার ক্ষয়ক্ষতির খবর পাওয়া যায়নি। ভূমিকম্পের ফলে ইরাক ও ইরানের অনেক শহরের বিদ্যুৎ সংযোগ বিচ্ছিন্ন হয়ে গেছে। আর আফ্টার শকের আশঙ্কায় দু’দেশের দুর্গত এলাকার হাজার হাজার মানুষ শীতের মধ্যে রাস্তা কিংবা পার্কে খোলা আকাশের নিচে অবস্থান করছেন। ইরাক ও ইরানে ভূমিকম্পের ঘটনা নতুন নয়। এর আগে ২০০৩ সালে ইরানের দক্ষিণ-পশ্চিমাঞ্চলে ৬ দশমিক ৬ মাত্রার ভূমিকম্পে অন্তত ২৬ হাজার মানুষ প্রাণ হারান।

Developed by: