সর্বশেষ সংবাদ
রাজ-শুভশ্রী এক বাঁধনে  » «   বাংলাদেশ নতুন যুগে প্রবেশ করেছে : প্রধানমন্ত্রী  » «   আগাম বন্যার আশঙ্কা  » «   ঈদে আসছে ‘আমার প্রেম আমার প্রিয়া’  » «   বজ্রপাতে একদিনে সারাদেশে ৩০ জনের মৃত্যু  » «   জাতীয় অধ্যাপক মুস্তাফা নূরউল ইসলামের ইন্তেকাল  » «   জাতিসংঘ মিশন : সিলেটের ২০০ স্বপ্নবাজ তরুণের নেতৃত্বে হাওরসন্তান সোহাগ  » «   বিয়ানীবাজারে বুদ্ধি প্রতিবন্ধি যুবতীকে ধর্ষণের অভিযোগে যুবক গ্রেফতার  » «   বিবাহবন্ধনে আবদ্ধ হচ্ছেন সোনম কাপুর আর আনন্দ আহুজা  » «   এসএসসি ফল পুনঃনিরীক্ষন শুরু : একাদশে ভর্তি ১৩ মে থেকে  » «   ষাঁড়ের গুতোয় কৃষকের মৃত্যু  » «   পা-ই তার সাফল্যের চাবিকাটি  » «   গাছ ভেঙে পড়ায় সিলেটের সাথে রেল যোগাযোগ বন্ধ  » «   এসএসসিতে সিলেটে পাস ৭০.৪২% : জিপিএ-৫ ৩১৯১ জন  » «   নিয়োগ চলছে কামা পরিবহন (প্রা. লি.)-এ।  » «  

আজ জাতীয় কন্যা শিশু দিবস আজ



?????????????????????????????????????????????????????????

প্রান্ত ডেস্ক: আজ শুক্রবার (১৩ অক্টোবর) জাতীয় কন্যা শিশু দিবস। ‘কন্যা শিশুর জাগরণ, আনবে দেশে উন্নয়ন’ এই প্রতিপাদ্য নিয়ে পালিত হচ্ছে জাতীয় কন্যা শিশু দিবস। দিবসটি উপলক্ষে সরকারি-বেসরকারি পর্যায়ে বিভিন্ন ধরনের কর্মসূচি হাতে নেওয়া হয়েছে। রাষ্ট্রপতি মো. আবদুল হামিদ ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা দিবস নিয়ে পৃথক বাণী দিয়েছেন।
রাষ্ট্রপতির মো. আবদুল হামিদ তার বাণীতে বিশ্বজুড়ে নারী ও কন্যাশিশুদের প্রতি অব্যাহত সহিংসতা ও নৃশংসতায় উদ্বেগ প্রকাশ করেন। তিনি বলেন, ‘কন্যা-জায়া-জননীর বাইরেও কন্যাশিশুর বৃহৎ জগত রয়েছে। স্বাধীনভাবে নিজের মতামত ব্যক্ত করা ছাড়াও পরিবার, সমাজ, দেশ ও রাষ্ট্রীয় কর্মকাণ্ডে নারীদের অংশগ্রহণের মাধ্যমে তাদের প্রকৃত ক্ষমতায়ন করা সম্ভব। এ জন্য কন্যাশিশুদের শিক্ষা, স্বাস্থ্য, নিরাপত্তাসহ বেড়ে ওঠার সব অনুকূল পরিবেশ নিশ্চিত করতে হবে।’
রাষ্ট্রপতি কন্যা শিশুর অধিকার ও মর্যাদা সমুন্নত রাখতে সমাজের দৃষ্টিভঙ্গি পরিবর্তনের জন্য সার্বিক সচেতনতা বৃদ্ধির আহ্বান জানান।
প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা কন্যা শিশু দিবসের সার্বিক সাফল্য কামনা করেন। তিনি কন্যা শিশুদের সার্বিক সুরক্ষা ও উন্নয়নে সরকারের পাশাপাশি বেসরকারি প্রতিষ্ঠান, গণমাধ্যমসহ সমাজের সর্বস্তরের জনগণকে এগিয়ে আসার আহ্বান জানান।
দিবসটি উপলক্ষে বাংলাদেশ শিশু একাডেমি ও জাতীয় কন্যা শিশু অ্যাডভোকেসি ফোরাম শুক্রবার দিনব্যাপী বিভিন্ন কর্মসূচি গ্রহণ করেছে। সকাল ৯টায় জাতীয় জাদুঘরের সামনে থেকে শুরু হয় কন্যা শিশু শোভাযাত্রা। এ শোভাযাত্রা শিশু একাডেমি চত্বরে এসে শেষ হয়। এরপর শিশু একাডেমি মিলনায়তনে অনুষ্ঠিত হবে আলোচনা, চিত্রাঙ্কন ও বিতর্ক প্রতিযোগিতার পুরস্কার বিতরণ, কন্যা শিশুদের আঁকা ছবি প্রদর্শনী, কন্যা শিশুদের সম্পাদনায় বিশেষ বুলেটিন, ক্রোড়পত্র ও জার্নাল প্রকাশ। কন্যাশিশুদের নির্মিত শিশুতোষ চলচ্চিত্র প্রদর্শনীরও আয়োজন করা হয়েছে। মহিলা ও শিশু বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের প্রতিনিধি, প্রমীলা ক্রিকেটার ও এভারেস্ট জয়ী নারীরা এসব অনুষ্ঠানে
মেয়েদের শিক্ষার অধিকার, পরিপুষ্টি, আইনি সহায়তা ও ন্যায় অধিকার, চিকিৎসা সুবিধা ও বৈষম্য থেকে সুরক্ষা, নারীর বিরুদ্ধে হিংসা ও বলপূর্বক বাল্যবিবাহ বন্ধে কার্যকর ভূমিকা পালনের উদ্দেশ্যে এ দিবসের সূচনা করা হয়। ২০১১ সালের ১৯ ডিসেম্বর তারিখে জাতিসংঘের সাধারণ সভায় আন্তর্জাতিক কন্যা শিশু দিবসের প্রস্তাব গৃহীত হয়। এরই ফলশ্রুতিতে ২০১২ সালের ১১ অক্টোবর প্রথম আন্তর্জাতিক কন্যা শিশু দিবস পালন করা হয়। বাংলাদেশে ২০১৩ সাল থেকে বছরের একটি দিন জাতীয় কন্যা শিশু দিবস পালন করা হচ্ছে। সূত্র: বাসস।

Developed by: