সর্বশেষ সংবাদ
রাজ-শুভশ্রী এক বাঁধনে  » «   বাংলাদেশ নতুন যুগে প্রবেশ করেছে : প্রধানমন্ত্রী  » «   আগাম বন্যার আশঙ্কা  » «   ঈদে আসছে ‘আমার প্রেম আমার প্রিয়া’  » «   বজ্রপাতে একদিনে সারাদেশে ৩০ জনের মৃত্যু  » «   জাতীয় অধ্যাপক মুস্তাফা নূরউল ইসলামের ইন্তেকাল  » «   জাতিসংঘ মিশন : সিলেটের ২০০ স্বপ্নবাজ তরুণের নেতৃত্বে হাওরসন্তান সোহাগ  » «   বিয়ানীবাজারে বুদ্ধি প্রতিবন্ধি যুবতীকে ধর্ষণের অভিযোগে যুবক গ্রেফতার  » «   বিবাহবন্ধনে আবদ্ধ হচ্ছেন সোনম কাপুর আর আনন্দ আহুজা  » «   এসএসসি ফল পুনঃনিরীক্ষন শুরু : একাদশে ভর্তি ১৩ মে থেকে  » «   ষাঁড়ের গুতোয় কৃষকের মৃত্যু  » «   পা-ই তার সাফল্যের চাবিকাটি  » «   গাছ ভেঙে পড়ায় সিলেটের সাথে রেল যোগাযোগ বন্ধ  » «   এসএসসিতে সিলেটে পাস ৭০.৪২% : জিপিএ-৫ ৩১৯১ জন  » «   নিয়োগ চলছে কামা পরিবহন (প্রা. লি.)-এ।  » «  

লাস ভেগাসে স্বয়ংক্রিয় বন্দুকের গুলিতে নিহত ৫0



5প্রান্ত ডেস্ক: যুক্তরাষ্ট্রের লাস ভেগাসের কনসার্টে বন্দুকধারীর এলোপাতাড়ি গুলিতে নিহতের সংখ্যা বেড়ে ৫০ জনে দাঁড়িয়েছে। রোববার রাতে মানদালয় বে হোটেল অ্যান্ড ক্যাসিনোর ওই গোলাগুলিতে আহত হয়েছে আরও দুই শতাধিক। পুলিশ জানিয়েছে, মানদালয় বে হোটেল অ্যান্ড ক্যাসিনোর ৩২ তলা থেকে হামলাকারী বন্দুকধারী ৬৪ বছর বয়সী স্টিফেন প্যাডোক কর্মকর্তাদের গুলিতে নিহত হয়েছেন। স্টিফেন ওই এলাকার বাসিন্দা। তবে তার সঙ্গে থাকা অন্য সহযোগীকে খুঁজছে পুলিশ।
লাস ভেগাস শেরিফ লোমবার্দো জানান, হামলার ধরন অনেকটাই সিংহের একাকী আক্রমণের মতো ছিল। হতাহতের সঠিক পরিসংখ্যান না জানাতে পারলেও আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর দায়িত্বরত দুজন কর্মকর্তার নিহতের তথ্য নিশ্চিত করেছেন তিনি। স্থানীয় হাসপাতালের একজন মুখপাত্র বলেন, আহতদের মধ্যে আরও ১৪ জনের অবস্থা আশঙ্কাজনক। প্রাথমিকভাবে ছড়িয়ে পড়েছিল যে, লাস ভেগাসের বিভিন্নস্থানে হামলা হয়েছে; তবে পুলিশ বলছে সেই তথ্য পুরোটাই ভুয়া। প্রত্যক্ষদর্শীরা বলছেন, ওই বন্দুকধারী এলোপাতাড়ি গুলি চালানোয় কয়েকশ মানুষ ঘটনাস্থল থেকে পালিয়ে যায়। সামাজিক যোগাযোগের মাধ্যমে ছড়িয়ে পড়া ভিডিওতে শোনা যায়, স্বয়ংক্রিয় বন্দুকে একের পর এক গুলি ছোড়ার শব্দ।
ঘটনাস্থলের আশ-পাশের কয়েকটি হোটেল বন্ধ করে দিয়েছে পুলিশ। হামলার সঙ্গে জড়িত দুটি গাড়ির খোঁজ করছে আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর সদস্যরা। তাৎক্ষণিকভাবে আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর সদস্যরা বন্দুকহাতে ঘটনাস্থলে পৌঁছান। বহু মানুষ হোটেল, রেস্টুরেন্ট এবং বিমানবন্দরে আশ্রয় নেন। প্রত্যক্ষদর্শী মাইক থমসন বিবিসিকে বলেন, ‘মানুষ অনেকটাই বিভ্রান্ত হয়ে দৌড়ে পালাচ্ছিল। একজনকে দেখলাম পুরো শরীর রক্তাক্ত। তখনই আমি বুঝতে পারি গুরুতর কিছু ঘটেছে।’ তিনি বলেন, মানুষজন দৌড়াদৌড়ি করছিল, সে কারণে একেবারে ভয়াবহ পরিস্থিতির তৈরি হয়।

সূত্র : বিবিসি।

Developed by: