সর্বশেষ সংবাদ
ফেঞ্চুগঞ্জ ইউনিয়ন ছাত্রদলের কমিটি : ঘোষণা উপজেলার, বাতিল জেলার  » «   ক্রীড়া সংগঠক আব্দুল কাদিরের মায়ের ইন্তেকাল  » «   রণবীর-দীপিকা বিয়ে নভেম্বরে?  » «   যাদুকর ম্যারাডোনার পায়ের অবস্থা করুণ  » «   একটু আগেবাগেই শীতের আগমণ  » «   চট্টগ্রামে আইয়ুব বাচ্চুর জানাযা বাদ আছর  » «   রাবণ পোড়ানো দর্শনকারী ভিড়ের উপর দিয়ে ছুটে গেলো ট্রেন : নিহত ৬০  » «   গোলাপঞ্জে ফায়ার সার্ভিস ও সিভিল ডিফেন্স স্টেশন উদ্বোধন করলেন শিক্ষামন্ত্রী  » «   বিসর্জনের দিন সিলেটে আসনে ‘দেবী’  » «   বিভিন্ন পূজা মণ্ডপ পরিদর্শনে মেয়র আরিফ  » «   সিলেটে স্বয়ংক্রিয় কৃষি-আবহাওয়া স্টেশন স্থাপিত  » «   শীতে ত্বক সজীব রাখতে শাক-সবজি খান  » «   সিলেট ওসমানী বিমানবন্দর সংস্কার হচ্ছে প্রায় ৪ কোটি টাকা ব্যয়ে  » «   কোম্পানীগঞ্জে টাস্কফোর্সের অভিযানে পেলোডার মেশিন জব্দ  » «   ডিজিটাল নিরাপত্তা আইন সংশোধনে সরকারকে নোটিশ  » «  

শাহজালালে গায়ের রং ফর্সাকারী ইনজেকশন আটক



longপ্রান্তডেস্ক:হজরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে আমদানি নিয়ন্ত্রিত গায়ের রং ফর্সাকারী ক্ষতিকারক ইনজেকশন জব্দ করেছে শুল্ক গোয়েন্দা ও তদন্ত অধিদফতর। মালয়েশিয়া থেকে আসা তিনটি পণ্যের চালান থেকে ২১৪ পিস ইনজেকশনের ভায়াল (বোতল) উদ্ধার করা হয়। শুল্ক গোয়েন্দা ও তদন্ত অধিদফতরের মহাপরিচালক ড. মইনুল খান এ তথ্য জানিয়েছেন।
তিনি বলেন, শুল্ক গোয়েন্দাদের কাছে গোপন সংবাদ ছিল, মালয়েশিয়া থেকে আসা আমদানি নিয়ন্ত্রিত ওষুধের চালানগুলো ওষুধ প্রশাসনের অনুমতি ছাড়া খালাস করে নেয়া হবে। সে তথ্যের ভিত্তিতে শুল্ক গোয়েন্দারা হজরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরের জিপিও সর্টিং সেন্টারে অবস্থান নেন।
ড. মইনুল খান বলেন, পরবর্তীতে জিপিও সর্টিং সেন্টারে মিথ্যা ঘোষণা দিয়ে কসমেটিকসের নামে আনা আমদানি নিয়ন্ত্রিত ওষুধের তিনটি পণ্য চালান জব্দ করা হয়। সন্দেহজনক পণ্য চালানটি শনাক্তের পর স্ক্যানিংয়ের মাধ্যমে নিশ্চিত হয়ে আটক করা হয়। পণ্য চালানগুলো মালয়েশিয়া হতে এমএইচ ০১১২ এর মাধ্যমে কুয়ালালামপুর থেকে শাহজালালে আসে। পণ্য চালানটিতে কসমেটিকস ঘোষণা থাকলেও ইনভেন্ট্রি করে ২১৪ পিস ইনজেকশনের ভায়াল পাওয়া যায়। এ ধরনের ওষুধ আমদানি জনস্বাস্থ্যের জন্য হুমকিস্বরূপ। এসব ইনজেকশন গায়ের রং ফর্সা করার জন্য মানবদেহে ইনজেক্ট করা হয় বলে প্রাথমিকভাবে জানতে পেরেছেন গোয়েন্দারা। চালানটি মালয়েশিয়ার টাম পেং সেং নামের একজন পাঠিয়েছেন। প্রাপকের ঠিকানায় লিখা রয়েছে, মধ্য পীরবাগের খন্দকার ফারুক আহমেদ।

Developed by: