সর্বশেষ সংবাদ
রাজ-শুভশ্রী এক বাঁধনে  » «   বাংলাদেশ নতুন যুগে প্রবেশ করেছে : প্রধানমন্ত্রী  » «   আগাম বন্যার আশঙ্কা  » «   ঈদে আসছে ‘আমার প্রেম আমার প্রিয়া’  » «   বজ্রপাতে একদিনে সারাদেশে ৩০ জনের মৃত্যু  » «   জাতীয় অধ্যাপক মুস্তাফা নূরউল ইসলামের ইন্তেকাল  » «   জাতিসংঘ মিশন : সিলেটের ২০০ স্বপ্নবাজ তরুণের নেতৃত্বে হাওরসন্তান সোহাগ  » «   বিয়ানীবাজারে বুদ্ধি প্রতিবন্ধি যুবতীকে ধর্ষণের অভিযোগে যুবক গ্রেফতার  » «   বিবাহবন্ধনে আবদ্ধ হচ্ছেন সোনম কাপুর আর আনন্দ আহুজা  » «   এসএসসি ফল পুনঃনিরীক্ষন শুরু : একাদশে ভর্তি ১৩ মে থেকে  » «   ষাঁড়ের গুতোয় কৃষকের মৃত্যু  » «   পা-ই তার সাফল্যের চাবিকাটি  » «   গাছ ভেঙে পড়ায় সিলেটের সাথে রেল যোগাযোগ বন্ধ  » «   এসএসসিতে সিলেটে পাস ৭০.৪২% : জিপিএ-৫ ৩১৯১ জন  » «   নিয়োগ চলছে কামা পরিবহন (প্রা. লি.)-এ।  » «  

বাহুবলে ১৮ দিনেও খোঁজ মেলেনি শ্রমজীবি শিশুর



notd7 হবিগঞ্জ  প্রতিনিধি: বাহুবলে ১৮ দিনেও খোজ মেলেনি শিবলু মিয়া নামে এক শ্রমজীবি শিশুর। সে তার পিতার সাথে লাকড়ি কাটতে গিয়ে গত ২৫ আগস্ট নিখোঁজ হয়। এ ব্যাপারে নিখোঁজ শিশু শিবলু মিয়ার পিতা মঙ্গলবার বাহুবল মডেল থানায় জিডি (জিডি নং- ৪৮৭) এন্ট্রি করেছেন। নিখোঁজ শিবলু মিয়া উপজেলার গোহারুয়া গ্রামের দরিদ্র আলাই মিয়ার পুত্র।
আলাই মিয়া জানান, ওই দিন তিনি তার পুত্র শিবলু মিয়া (১১) ও সালমান মিয়া (৯) কে সাথে নিয়ে উপজেলার শিবপাশা গ্রামে লাকড়ি কাটতে যান। সেখান থেকে ঠেলাগাড়ি বোঝাই করে লাকড়ি নিয়ে বাবনাকান্দি গ্রামের বড় মসজিদের কাছে পৌঁছে বেলা দেড়টার দিকে। মসজিদের কাছে ঠেলাগাড়ি দাঁড় করিয়ে ছেলে শিবলু মিয়াকে রেখে পাশের বাড়িতে যান আলাই মিয়া ও শিশুপুত্র সালমান মিয়া। কিছুক্ষণ পর ওই বাড়ি থেকে বের হয়ে এসে দেখতে পান ঠেলাগাড়ি, কুড়াল যথাস্থানে থাকলেও পুত্র শিবলু মিয়া নেই। এরপর আশপাশে পুত্র শিবলু মিয়াকে খোঁজতে শুরু করেন। কোথাও তার সন্ধান না পেয়ে বাড়ি ফিরে যান। বাড়িতে ফিরেও পুত্র শিবলু মিয়ার কোন সন্ধান না পেয়ে আবার বাবনাকান্দি গ্রামে যান। এরপর বাবনাকান্দি, শিবপাশা, হরিপাশা, কটিয়াদী, কাজীহাটা ও নন্দনপুরসহ আশপাশের গ্রামে মসজিদের মাইকযোগে নিখোঁজ সংবাদ প্রচার করেন।
তিনি বলেন, মাইকিং ছাড়াও আত্মীয়-স্বজন, পরিচিতজনসহ সকল স্থানে খোঁজাখুজি করেও শিশু পুত্র শিবলু মিয়ার কোন সন্ধান পাইনি। এদিকে, শিবলু মিয়ার জন্য কান্নাকাটি করতে করতে আমার স্ত্রী মলজা খাতুন শয্যাশায়ী হয়ে পড়েছে।

Developed by: