সর্বশেষ সংবাদ
ফেঞ্চুগঞ্জ ইউনিয়ন ছাত্রদলের কমিটি : ঘোষণা উপজেলার, বাতিল জেলার  » «   ক্রীড়া সংগঠক আব্দুল কাদিরের মায়ের ইন্তেকাল  » «   রণবীর-দীপিকা বিয়ে নভেম্বরে?  » «   যাদুকর ম্যারাডোনার পায়ের অবস্থা করুণ  » «   একটু আগেবাগেই শীতের আগমণ  » «   চট্টগ্রামে আইয়ুব বাচ্চুর জানাযা বাদ আছর  » «   রাবণ পোড়ানো দর্শনকারী ভিড়ের উপর দিয়ে ছুটে গেলো ট্রেন : নিহত ৬০  » «   গোলাপঞ্জে ফায়ার সার্ভিস ও সিভিল ডিফেন্স স্টেশন উদ্বোধন করলেন শিক্ষামন্ত্রী  » «   বিসর্জনের দিন সিলেটে আসনে ‘দেবী’  » «   বিভিন্ন পূজা মণ্ডপ পরিদর্শনে মেয়র আরিফ  » «   সিলেটে স্বয়ংক্রিয় কৃষি-আবহাওয়া স্টেশন স্থাপিত  » «   শীতে ত্বক সজীব রাখতে শাক-সবজি খান  » «   সিলেট ওসমানী বিমানবন্দর সংস্কার হচ্ছে প্রায় ৪ কোটি টাকা ব্যয়ে  » «   কোম্পানীগঞ্জে টাস্কফোর্সের অভিযানে পেলোডার মেশিন জব্দ  » «   ডিজিটাল নিরাপত্তা আইন সংশোধনে সরকারকে নোটিশ  » «  

কেমন আছেন হঠাৎ বৃষ্টি ছবির নায়িকা প্রিয়াঙ্কা



9প্রান্ত ডেস্ক: সেই প্রিয়মুখ, ভাঁজ করা শাড়িতে চিরায়ত বাঙালি মেয়ে। অজানা প্রেমিকের খুঁজে পেরেশান। প্রতীক্ষার দিন গুনে গুনে আনমনেই গেয়ে উঠেছিলেন, ‘একদিন স্বপ্নের দিন’। মনে পড়ে সেই দীপার কথা?

একদম ঠিক তাই। বলছি ‘হঠাৎ বৃষ্টি’ সিনেমার নায়িকা প্রিয়াঙ্কার কথাই। বাংলা সিনেমায় তিনি নক্ষত্রের ঝলক নিয়ে হাজির হয়েছিলেন। অল্প কিছু ছবি দিয়েই চিরদিনের মতো ইতিহাস হয়ে রইলেন এই মিষ্টি নায়িকা।

টালিউডের এক সময়ের দাপুটে এ নায়িকার পুরো নাম প্রিয়াঙ্কা ত্রিবেদী। সবার প্রিয় অভিনেত্রী প্রিয়াঙ্কা ত্রিবেদী ১৯৯৬ সালের মিস ক্যালকাটা নির্বাচিত হয়েছিলেন। ছোটবেলায় সিঙ্গাপুরে অনেকটা সময় কাটালেও পরে পড়াশোনা করেছেন ক্যালকাটা ইন্টারন্যাশনাল স্কুলে। মডেলিং দিয়ে ক্যারিয়ার শুরু করা এই অভিনেত্রী ১৯৯৮ সালে বাসু চট্টোপাধ্যায়ের ‘হঠাৎ বৃষ্টি’ ছবির মাধ্যমে বড় পর্দায় অভিষিক্ত হন।

প্রথম ছবিতে বাংলাদেশের নায়ক ফেরদৌসের সঙ্গে জুটি বেঁধে অভিনয় করেন তিনি। বাংলাদেশের দর্শকদের পাশাপাশি কলকাতার দর্শকরা ‘হঠাৎ বৃষ্টি’ ছবির পর থেকেই আপন করে নেন এ নায়িকাকে। রীতিমত তোলপাড় ফেলে দিয়েছিলেন তিনি। পৌঁছে গিয়েছিলেন সব যুবকের অন্তরে। এই জুটিকে একই পরিচালকের ‘চুপি চুপি’ ছবিতেও দেখা গিয়েছিলো। তবে সেই ছবি তেমন করে আলোচনায় আসেনি।

এরপর একে একে বাংলা, হিন্দি, তামিল, তেলেগু, কন্নড় মিলিয়ে ১২টিরও বেশি ছবি করেন। ২০০২ সালে অভিষেক পাওয়া জিতের সঙ্গে ‘সাথী’ সিনেমাতেও অভিনয় করেন। এ ছবির পর দর্শকপ্রিয়তা বেড়ে বহুগুণ হয় তার। দুই বাংলায় ছড়িয়ে পড়ে এই ছবির ‘ও বন্ধু তুমি শুনতে কী পাও’ শিরোনামের গান। সেই জনপ্রিয়তার সূত্র ধরে জিৎ-প্রিয়াঙ্কা জুটি বেঁধে আরও পাঁচটি বাংলা ছবি মুক্তি পায় তাদের। তবে কোনো ছবিই আর ‘সাথী’ ছবির জনপ্রিয়তাকে ছাড়িয়ে যেতে পারেনি।
তবে সবগুলো ছবিই ছিলো জনপ্রিয়। অনেকেই এই নায়িকাকে ঘিরে চলচ্চিত্র নির্মাণের স্বপ্ন দেখছিলেন। কিন্তু হঠাৎ করেই ২০১১ সালে ইন্ডাস্ট্রি থেকে হারিয়ে যান প্রিয়াঙ্কা। চলচ্চিত্রে এ অভিনেত্রীর কোনো সন্ধান না পাওয়ায় সবাই ধরে নিয়েছেলেন সিনেমাকে বিদায় জানিয়েছেন।

মাঝখানে হঠাৎ শোনা গিয়েছিলো আবার চলচ্চিত্রে ফিরেছেন প্রিয়াংঙ্কা। তবে বাংলা ছবি নয় দক্ষিণী ছবিতে। শেষ পর্যন্ত আর কোনো খবর পাওয়া যায়নি।

বর্তমানে এ নায়িকা সংসার জীবন নিয়েও ব্যস্ত রয়েছেন। কন্নড় ছবির নায়ক উপেন্দ্র কুমারকে বিয়ে করেন। বর্তমানে স্বামী ও দু’সন্তানকে নিয়ে বেঙ্গালুরুতে বসবাস করছেন। মাঝেমধ্যে বিভিন্ন ফ্যাশন শোতে অংশ নিতে দেখা যায় এই অভিনেত্রীকে।

Developed by: