সর্বশেষ সংবাদ
ফেঞ্চুগঞ্জ ইউনিয়ন ছাত্রদলের কমিটি : ঘোষণা উপজেলার, বাতিল জেলার  » «   ক্রীড়া সংগঠক আব্দুল কাদিরের মায়ের ইন্তেকাল  » «   রণবীর-দীপিকা বিয়ে নভেম্বরে?  » «   যাদুকর ম্যারাডোনার পায়ের অবস্থা করুণ  » «   একটু আগেবাগেই শীতের আগমণ  » «   চট্টগ্রামে আইয়ুব বাচ্চুর জানাযা বাদ আছর  » «   রাবণ পোড়ানো দর্শনকারী ভিড়ের উপর দিয়ে ছুটে গেলো ট্রেন : নিহত ৬০  » «   গোলাপঞ্জে ফায়ার সার্ভিস ও সিভিল ডিফেন্স স্টেশন উদ্বোধন করলেন শিক্ষামন্ত্রী  » «   বিসর্জনের দিন সিলেটে আসনে ‘দেবী’  » «   বিভিন্ন পূজা মণ্ডপ পরিদর্শনে মেয়র আরিফ  » «   সিলেটে স্বয়ংক্রিয় কৃষি-আবহাওয়া স্টেশন স্থাপিত  » «   শীতে ত্বক সজীব রাখতে শাক-সবজি খান  » «   সিলেট ওসমানী বিমানবন্দর সংস্কার হচ্ছে প্রায় ৪ কোটি টাকা ব্যয়ে  » «   কোম্পানীগঞ্জে টাস্কফোর্সের অভিযানে পেলোডার মেশিন জব্দ  » «   ডিজিটাল নিরাপত্তা আইন সংশোধনে সরকারকে নোটিশ  » «  

বাবা আমাকে ছাড়া খেতেন না: সম্রাট



4 প্রান্ত ডেস্ক : নায়করাজ রাজ্জাকের ছোট ছেলের নাম সম্রাট। বাবার হাত ধরেই অভিনয় জগতে প্রবেশ তার। বাবার কাছাকাছি থাকতে সবসময়ই পছন্দ করতেন তিনি। শুটিংয়ের ফাঁকে নায়করাজ নিজ হাতে তাকে টিফিন খাওয়াতেন। গত সোমবার সন্ধ্যায় যখন রাজধানীর ইউনাইটেড হাসপাতালের সামনে জনস্রোত তখন ডুকরে কাঁদছিলেন সম্রাট। কারণ ততক্ষণে সংবাদ চলে এসেছে যে নায়করাজ আর বেঁচে নেই। সম্রাট সে সময় বলেন, বাবার সঙ্গে আমার যে কতটা গভীর সম্পর্ক ছিল তা বলে বোঝানো যাবে না। আমি অনেক আদর পেয়েছি বাবার। আমাকে বড় হওয়ার পরও খুব শাসন করতেন।  তবে সেই শাসনটা আমি বেশ উপভোগ করতাম। বাবা আমার সঙ্গে রাগ করলেও কিছুক্ষণ পরই সব ভুলে আমাকে কাছে টানতেন।  বাবা আজ নেই ভাবতেই পারছি না। গতকালও একসঙ্গে আড্ডা দিলাম। এদিকে, গত জুন মাসে কলকাতার টেলি সিনে সোসাইটি আজীবন সম্মাননা দিয়েছে বাংলাদেশের নায়করাজ রাজ্জাককে। সে সময় বাবার পাশে ছিলেন সম্রাট। এদিকে রাতের বেলা বাসায় ফিরতে দেরি হলে বাবার কাছে বকা খেতেন বলে জানান সম্রাট। এ প্রসঙ্গে কাঁদতে কাঁদতে বললেন, বাবা রাতে আমাকে ছাড়া খেতেন না। রাত দশটা পার হলেই আমাকে ফোন করে বাসায় আসতে বলতেন। বাবা বলতেন, তুমি আসো, একসঙ্গে খাবো। আমি দেরি হবে জানলেও অপেক্ষা করতেন। কয়েকদিন আগে চ্যানেল আইয়ের জন্য একটি টেলিছবিতেও কাজ করতে চেয়েছিলেন নায়করাজ। সেটা পরিচালনা করার কথা ছিল সম্রাটের। শেষ পর্যন্ত তা আর হলো না। সংসারের প্রতিটি মানুষের সঙ্গে নায়করাজের ছিল সুন্দর সম্পর্ক। সম্রাট সবশেষে তার বাবাকে শ্রদ্ধা জানাতে আসার জন্য তথ্যমন্ত্রী হাসানুল হক ইনু, অভিনেতা সৈয়দ হাসান ইমাম, চলচ্চিত্র প্রযোজক, পরিচালক ও গীতিকার মাজহারুল আনোয়ার, অভিনেতা আলমগীর, চিত্রনায়িকা সূচন্দা, ববিতা, চম্পা, শাবনূর, অভিনেতা শাকিব খান, সুব্রত, আলীরাজ, রুবেল, ফেরদৌস, ওমর সানিসহ তথ্য মন্ত্রণালয়, বাংলাদেশ চলচ্চিত্র উন্নয়ন করপোরেশন, বাংলাদেশ চলচ্চিত্র পরিচালক সমিতি, চলচ্চিত্র প্রযোজক পরিবেশক সমিতি, চলচ্চিত্র শিল্পী সমিতি, বাংলাদেশ চলচ্চিত্র পরিবার, সিনেম্যাক্স মুভি পরিবার, বাংলাদেশ আওয়ামী সাংস্কৃতিক লীগ, বাংলাদেশ ফিল্ম ক্লাব, চলচ্চিত্র গ্রাহক সংস্থা, চলচ্চিত্র সাংবাদিক সমিতি, সিনে স্থির চিত্রগ্রাহক সমিতি, জাসাসসহ বিভিন্ন সংগঠনের প্রতি কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেন।

Developed by: