সর্বশেষ সংবাদ
চুনারুঘাটে দুপক্ষের সংঘর্ষে নিহত ১  » «   মিয়ানমারে আবারও সেনা অভ্যুত্থানের শঙ্কা  » «   সিলেট বিভাগে সেরা র‍্যাংকিংয়ে এমসি কলেজ  » «   ফেনীতে মুসলমান শিক্ষককে খুন করলেন বৌদ্ধ সহকর্মী শিক্ষক !  » «   বায়োলজিক্যাল ঘড়ি কী, যে কারণে নোবেল পুরস্কার  » «   নগরীতে বিপুল পরিমাণ মাদক দ্রব্যসহ ২ শীর্ষ ব্যবসায়ী আটক  » «   চিকিৎসায় নোবেল পেলেন মার্কিন তিন বিজ্ঞানী  » «   সিলেটে বিদ্যুতের ডিজিটালাইজেশনের ফাঁদে দুই লাখ গ্রাহক!  » «   ঊর্ধ্বমুখী শেয়ারবাজারে বাড়ছে ঝুঁকি  » «   মৃত্যুর আগে পানি চেয়েও পায়নি কিশোর  » «   সিলেটে ৫৭৬ মণ্ডপে দুর্গাপূজা, থাকছে তিনস্তরের নিরাপত্তা  » «   জঙ্গি অর্থায়নের অভিযোগে গ্রেপ্তার ১১ জনের নাম প্রকাশ  » «   মানবতা বিরোধী অপরাধে দোষী সাব্যস্ত সু চি-সেনাপ্রধান  » «   শাবির ভর্তি পরীক্ষা ১৮ নভেম্বর  » «   তিন ছেলে পুলিশ কর্মকর্তা, তবু ভিক্ষা করেন মা!  » «  

জগন্নাথপুরে কলেজ ছাত্রী ধর্ষণ মামলার আসামী গ্রেপ্তার হয়নি, ক্ষোভ



21জগন্নাথপুরপ্রতনিধিি: জগন্নাথপুরে এক কলেজ ছাত্রীকে ধর্ষণের আসামীদের ঘটনার ১২দিনেও আসামীদের গ্রেপ্তার করতে পারেনি পুলিশ। ধর্ষণের শিকার ওই ছাত্রী পরে আত্মহত্যা করেন।
মামলা দায়ের’র ৯দিন পেরিয়ে গেলেও অভিযুক্ত ৬ আসামীদের মধ্যে একজনকেও গ্রেফতার করতে পারেনি জগন্নাথপুর থানা পুলিশ। এ নিয়ে সর্বত্র সমালোচনার ঝড় বইছে। আসামীদের গ্রেফতারের দাবিতে ইতিমধ্যে কলেজ শিক্ষার্থীরা মানববন্ধন কর্মসূচি পালন করে গ্রেফতারের জন্য ৪৮ ঘণ্টা সময় বেঁধে দেয় আইনশৃঙ্খলা বাহিনীকে।
ঘোষিত ওই ৪৮ ঘণ্টা পেরিয়ে গেলেও একজন আসামীকে গ্রেফতার করতে পারেনি পুলিশ। আসামীরা ঘটনার ১২দিন হলেও রয়ে গেল অধরা। আজ শনিবার জগন্নাথপুর ডিগ্রি কলেজের শিক্ষার্থীরা ক্লাস বর্জনের ঘোষণা দিয়েছেন।
জগন্নাথপুর উপজেলার পাটলি ইউনিয়নের কবিরপুর গ্রামের আখলুছ মিয়ার স্থানীয় জগন্নাথপুর ডিগ্রি কলেজের দ্বাদশ শ্রেণির মেধাবী ছাত্রী রোমেনা বেগমকে (১৮) ২৫ জুলাই কলেজের ক্লাস শেষে বাড়ী ফেরার পথে সিএনজি চালক রোমেনার খালতো ভাই ইউনুছ মিয়া তাকে অপহরণ করে নিয়ে যায়। পরে তাঁকে দুদিন অপহরণ করে নিয়ে ধর্ষণ করে। পরে সামাজিক চাপে বাড়িতে ফিরিয়ে দেয় ধর্ষক ও অপহরণকারী ইউনুছ। এনিয়ে গ্রাম্য সালিশিরা বিষয়টি নিষ্পত্তি করার জন্য সময় চেয়ে নিলে বিষয়টি নিষ্পত্তি না হওয়ায় ধর্ষিতা কলেজ ছাত্রী রোমেনা ঘটনার ৬ দিন পর ৩১ জুলাই লজ্জায় আত্মহত্যা করেন।
আত্মহত্যার তিনদিন পর জগন্নাথপুর থানায় একটি ধর্ষণ ও প্ররোচনা মামলা ধর্ষক ইউনুছসহ ৬ জনের বিরুদ্ধে মামলা করেন ধর্ষিতার ভাই জুনেদ। মামলা দায়েরর ৯দিন পেরিয়ে যাওয়ায় চরম হতাশায় রয়েছেন মামলার বাদি পরিবারের লোকজন। তাঁদের দাবি আসামীরা প্রভাবশালী হওয়ায় এখনও অধরা রয়েছে।
আসামীদের গ্রেফতার করে আইনের আওতায় আনতে জোর দাবি জানিয়েছেন কলেজ ছাত্ররা। আকমল হোসেন, জাবির আহমদ চৌধুরী, এম.এ কাসেম, মো. উসমান গনিসহ আরও অনেকেই বলেন, আসামীদের গ্রেফতার করতে পুলিশ গড়িমসি করছে। তাঁদের গড়িমসির ফলে আসামীরা অধরা রয়েছে। আমরা ইতিমধ্যে শান্তিপূর্ণভাবে মানববন্ধন করেছি এবং আজ (শনিবার) ক্লাস বর্জন করার সিদ্ধান্ত গ্রহন করেছি। তাদেরকে গ্রেফতার না করা পর্যন্ত আমরা কলেজ শিক্ষার্থীরা আন্দোলন চালিয়ে যাব।
মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা জগন্নাথপুর থানার সাব ইন্সপেক্টর লুৎফুর রহমান জানিয়েছেন, ‘ আসামীদের গ্রেফতার করতে পুলিশ সর্বাত্মক চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছে’
তিনি আরও বলেন, আসামীদের গ্রেফতার করার স্বার্থে তথ্য প্রদানকারীকে আমাদের পুলিশের পক্ষ থেকে পুরুস্কার প্রদানের ঘোষনা প্রদান করা হয়েছে।

Developed by: