সর্বশেষ সংবাদ
ফেঞ্চুগঞ্জ ইউনিয়ন ছাত্রদলের কমিটি : ঘোষণা উপজেলার, বাতিল জেলার  » «   ক্রীড়া সংগঠক আব্দুল কাদিরের মায়ের ইন্তেকাল  » «   রণবীর-দীপিকা বিয়ে নভেম্বরে?  » «   যাদুকর ম্যারাডোনার পায়ের অবস্থা করুণ  » «   একটু আগেবাগেই শীতের আগমণ  » «   চট্টগ্রামে আইয়ুব বাচ্চুর জানাযা বাদ আছর  » «   রাবণ পোড়ানো দর্শনকারী ভিড়ের উপর দিয়ে ছুটে গেলো ট্রেন : নিহত ৬০  » «   গোলাপঞ্জে ফায়ার সার্ভিস ও সিভিল ডিফেন্স স্টেশন উদ্বোধন করলেন শিক্ষামন্ত্রী  » «   বিসর্জনের দিন সিলেটে আসনে ‘দেবী’  » «   বিভিন্ন পূজা মণ্ডপ পরিদর্শনে মেয়র আরিফ  » «   সিলেটে স্বয়ংক্রিয় কৃষি-আবহাওয়া স্টেশন স্থাপিত  » «   শীতে ত্বক সজীব রাখতে শাক-সবজি খান  » «   সিলেট ওসমানী বিমানবন্দর সংস্কার হচ্ছে প্রায় ৪ কোটি টাকা ব্যয়ে  » «   কোম্পানীগঞ্জে টাস্কফোর্সের অভিযানে পেলোডার মেশিন জব্দ  » «   ডিজিটাল নিরাপত্তা আইন সংশোধনে সরকারকে নোটিশ  » «  

একটু আগেবাগেই শীতের আগমণ



FB_IMG_1539598890131
রেজাউল হক ডালিম
সিলেটসহ প্রায় পুরো দেশেই শীত ও কুয়াশা এবারে একটু আগেভাগেই নেমেছে।   অন্যান্য বছর কার্তৃকের শেষ দিকেই শীত ও কুয়াশা শুরু হয়। থাকে চৈত্র মাস পর্যন্ত। প্রচণ্ড শীত থাকে তিন মাস- অগ্রহায়ন, পৌষ ও মাঘ। বাকি তিন মাস স্বাভাবিক শীত। কিন্তু এবারে যেন শীত ও কুয়াশা পড়েছে একটু আগেই, আশ্বিনের শেষ দিকেই।  কার্তৃক শুরুর আগেই।
ছয় ঋতুর এ দেশে দীর্ঘ ছয় মাস শীত থাকলে নাজেহাল হয়ে পড়ে বিভিন্ন এলাকার গরিব, অসহায় ও খেটে খাওয়া মানুষ। এতো দীর্ঘমেয়াদি শীত বাংলাদেশের সব জেলায় হয় না।  তবে এবারে হতে পারে ব্যতিক্রম।  শীত থাকতে পারে একটু বেশি দিন।   তাই আসছে শীত মোকাবেলায় অনেকেই লেপ-তোষক কিনে প্রস্তুতি নিচ্ছেন। অনেকেই বাড়িতে থাকা পুরনো কাপড় ও লেপ-তোষক ধুয়ে-মুছে পরিষ্কার করছেন।
গত সপ্তাহ থেকে জানান দিচ্ছে শীত আসছে খুব শিগগির। রাস্তাঘাট কুয়াশাচ্ছন্ন হয়ে পড়েছে। শীতের আগাম বার্তা প্রেরণ করছে এই কুয়াশা। তবে আপাতত এই কুয়াশা দীর্ঘস্থায়ী হচ্ছে না। দুপুর হতে না হতেই কেটে যাচ্ছে।
শীতের আগমনী সঙ্কেতে লেপ-তোষকের দোকানদাররা খুশি হলেও গরিব-অসহায় মানুষ দুশ্চিন্তায় আছেন।
ইতোমধ্যে শীত মোকাবেলায় আগাম লেপ-তোষক বানিয়ে মজুদ করে রাখতে শুরু করেছেন দোকানদাররা। কারিগরদের যেন কথা বলার ফুসরত নেই। সবাই সুই-সুতো আর তুলা ধুনা নিয়ে ব্যস্ত। তারা অনেক দিন কর্মহীন থাকলেও এখন তাদের কদর বেড়েছে।
লেপ-তোষক শেলাইয়ের এক কারিগর জানান, কুয়াশার মধ্য দিয়ে শীতের আগমন হয়। যতই শীত বাড়ে লেপ-তোষকের চাহিদাও ততো বাড়ে। সাম্প্রতিক সকালগোলা দেখে মনে হচ্ছে এ বার শীতের তীব্রতা ভালোই থাকবে। তাই লেপ-তোষকের চাহিদাও ভালো থাকবে। তবে এ বছর লেপ-তোষকের দাম একটু বাড়বে বলে জানান তিনি। কারণ তুলা ও কাপড়ের দাম একটু বেড়েছে। তবে মজুরি সে হারে না বাড়ায় তিনি হতাশা ব্যক্ত করেন।
আরেক বিক্রেতা বলেন, সকালের কুয়াশা দেখে মনে হচ্ছে এবারও প্রচণ্ড শীত নামবে। প্রচণ্ড শীতের সময় কারিগররা লেপ-তোষকের মজুরি বাড়িয়ে দেয়। তাই আগাম লেপ-তোষক বানিয়ে রাখছি।
লেপ কিনতে আসা একজন জানান, দিনে হালকা গরম থাকলেও রাতে লেপ ছাড়া শীত কাটছেই না। রাতে একটু ঘুমানোর জন্য লেপ কিনতেই হলো।
সব মিলিয়ে সাধারণ মানুষ সকালের কুয়াশা দেখে আশঙ্কা প্রকাশ করছে- “এবার প্রচণ্ড শীত হবে। কারণ আশ্বিনে সাত দিনব্যাপী একটি ঝড় বৃষ্টি হয়। যেটি স্থানীয়ভাবে আশ্বিনের সাতাহা (সপ্তাহব্যাপী ঝড়-বৃষ্টি) নামে পরিচিত। এবছর তা হয়নি। এই সাতাহা না হওয়ায় এবার শীতের তীব্রতা একটু বেশি হতে পারে।”

Developed by: