সর্বশেষ সংবাদ
বিসর্জনের দিন সিলেটে আসনে ‘দেবী’  » «   বিভিন্ন পূজা মণ্ডপ পরিদর্শনে মেয়র আরিফ  » «   সিলেটে স্বয়ংক্রিয় কৃষি-আবহাওয়া স্টেশন স্থাপিত  » «   শীতে ত্বক সজীব রাখতে শাক-সবজি খান  » «   সিলেট ওসমানী বিমানবন্দর সংস্কার হচ্ছে প্রায় ৪ কোটি টাকা ব্যয়ে  » «   কোম্পানীগঞ্জে টাস্কফোর্সের অভিযানে পেলোডার মেশিন জব্দ  » «   ডিজিটাল নিরাপত্তা আইন সংশোধনে সরকারকে নোটিশ  » «   স্যুটকেসের ভিতরে নারী মডেলের মৃতদেহ  » «   ভারতীয় অর্থায়নে বিভিন্ন প্রকল্প পরিদর্শনে সিসিক মেয়র ও ভারতীয় সহকারী হাই কমিশনার  » «   মেসিবিহীন আর্জেন্টিনাকে হারালো ব্রাজিল  » «   নিজ গ্রামে সিলেট-৩ আসনে মনোনয়ন প্রত্যাশী আ.লীগ নেতা মনির হোসাইনের মতবিনিময়  » «   বিশ্বকাপ ক্রিকেটের ট্রফি আজ বাংলাদেশে আসছে, সিলেটে শুক্রবার  » «   সিলেট-৩ আসনে মনোনয়ন প্রত্যাশী শিক্ষাবিদ ও আইনজীবি মনির হোসাইনের মতবিনিময় আজ  » «   জিয়া অরফানেজ ট্রাস্ট মামলার রায় ২৯ অক্টোবর  » «   সনাতন ধর্মালম্বীদের আজ মহাসপ্তমী  » «  

এমসি কলেজের দুই গেটের সামনে রাস্তায় স্পিডব্রেকার স্থাপনের দাবি



127875
এমসি কলেজ প্রতিনিধি
প্রায় ১৭ হাজার শিক্ষার্থীর জীবনের নিরাপত্তার স্বার্থে সিলেটের মুরারিচাঁদ কলেজের সকল সংগঠনের নেতৃবৃন্দের এক জরুরি সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে। সোমবার রাত ৯টায় সিলেটের টিলাগড়স্থ আশা রেষ্টুরেন্টে এই মতবিনিময় সভাটি অনুষ্ঠিত হয়। প্রায় এক ঘন্টা যাবৎ বিরতিহীনভাবে চলা এই বৈঠকে কলেজের সাধারণ শিক্ষার্থীদের স্বার্থ সংশ্লিষ্ট বিভিন্ন বিষয় নিয়ে আলোচনা করা হয়। এরমধ্যে কলেজের মুল দুটি ফটকের সামনের রাস্তায় স্পিডব্রেকার ও ফুটঅভারব্রিজ স্থাপনের বিষয়টি প্রাধান্য পায়।
এসময় উপস্থিত নেতৃবৃন্দরা বলেন- বিকল্প কোন পথ না থাকার ধরুন কলেজের সামনের সদাব্যস্ত রাস্তাটি পার হয়েই এমসির শিক্ষার্থীদের ক্যাম্পাসে আসতে হয়। রাস্তায় কোন ধরনের গতিরোধক সিস্টেম চালু না থাকার ফলে গাড়িগুলো লাগামহীনভাবেই ছুটে চলে, আর অন্য কোন পথ না থাকায় বাধ্য হয়েই দ্রুতগতির এসব গাড়িগুলোর কোন এক ফাঁকে জীবনের ঝুকি নিয়েই শিক্ষার্থীদের কলেজে যেতে হয়। কলেজের সামনে দিয়ে বয়ে যাওয়া ব্যস্ততম রাস্তাটিতে কোন ধরনের গতিরোধক স্পিডব্রেকার না থাকার ধরুন চালকের অসাবধানতা ও লাগামহীন গাড়ি চালানোর ফলে প্রতি নিয়তই শিক্ষার্থীরা দুর্ঘটনার স্বীকার হতে হচ্ছে।
তারা আরও বলেন, সংশ্লিষ্টদের এতটুকু অবহেলার জন্যে প্রখ্যাত ব্যক্তিদের স্মৃতিবিজড়িত সিলেটের এই ঐতিহ্যবাহী কলেজের প্রায় ১৭ হাজার শিক্ষার্থী আজ জীবনের ঝুঁকি নিয়ে কলেজে যেতে হয়। যা আমাদের জন্যে লজ্জারও।
এসময় তারা এমসির শিক্ষার্থীদের জীবনের নিরাপত্তা ও ঝুঁকিপূর্ণ যাতায়াতের স্বার্থে কলেজের দুটি মুল ফটকের সামনে অতিদ্রুত স্পিডব্রেকার ও ফুটঅভারব্রিজ তৈরির জন্যে কলেজ প্রশাষন সহ সংশ্লিষ্টদের দৃষ্টি আর্কষণ করেন।
নেতৃবৃন্দরা এসময় হুঁশিয়ারি করে বলেন, আগামীর সম্ভাবনাময় ১৭ হাজার শিক্ষার্থীর নিরাপত্তার স্বার্থে অতিদ্রুত কার্যকর ব্যবস্থা না নেওয়া হলে, কলেজের শিক্ষক – শিক্ষিকাদের নিয়ে সাধারণ শিক্ষার্থীরা দুর্বার আন্দোলন গড়ে তুলতে বাধ্য হবে।
রাত ১০টা পর্যন্ত চলা এই জরুরী বৈঠকে এমসি কলেজ ছাত্রলীগ, মোহনা সাংস্কৃতিক সংগঠন, ত্রিয়েটার মুরারিচাঁদ, এমসি কলেজ প্রেসক্লাব, মুরারিচাঁদ কবিতা পরিষদ, তালামীজসহ কলেজের প্রায় সকল সামাজিক, সাংস্কৃতিক ও রাজনৈতিক সংগঠনের নেতৃবৃন্দ ও সাধারণ শিক্ষার্থীরা উপস্থিত ছিলেন।

Developed by: