সর্বশেষ সংবাদ
বিসর্জনের দিন সিলেটে আসনে ‘দেবী’  » «   বিভিন্ন পূজা মণ্ডপ পরিদর্শনে মেয়র আরিফ  » «   সিলেটে স্বয়ংক্রিয় কৃষি-আবহাওয়া স্টেশন স্থাপিত  » «   শীতে ত্বক সজীব রাখতে শাক-সবজি খান  » «   সিলেট ওসমানী বিমানবন্দর সংস্কার হচ্ছে প্রায় ৪ কোটি টাকা ব্যয়ে  » «   কোম্পানীগঞ্জে টাস্কফোর্সের অভিযানে পেলোডার মেশিন জব্দ  » «   ডিজিটাল নিরাপত্তা আইন সংশোধনে সরকারকে নোটিশ  » «   স্যুটকেসের ভিতরে নারী মডেলের মৃতদেহ  » «   ভারতীয় অর্থায়নে বিভিন্ন প্রকল্প পরিদর্শনে সিসিক মেয়র ও ভারতীয় সহকারী হাই কমিশনার  » «   মেসিবিহীন আর্জেন্টিনাকে হারালো ব্রাজিল  » «   নিজ গ্রামে সিলেট-৩ আসনে মনোনয়ন প্রত্যাশী আ.লীগ নেতা মনির হোসাইনের মতবিনিময়  » «   বিশ্বকাপ ক্রিকেটের ট্রফি আজ বাংলাদেশে আসছে, সিলেটে শুক্রবার  » «   সিলেট-৩ আসনে মনোনয়ন প্রত্যাশী শিক্ষাবিদ ও আইনজীবি মনির হোসাইনের মতবিনিময় আজ  » «   জিয়া অরফানেজ ট্রাস্ট মামলার রায় ২৯ অক্টোবর  » «   সনাতন ধর্মালম্বীদের আজ মহাসপ্তমী  » «  

ইন্দোনেশিয়ায় ভূমিকম্পে এ পর্যন্ত নিহত ৩০



death
প্রান্ত ডেস্ক
ইন্দোনেশিয়ার মধ্যাঞ্চলীয় সুলাওয়েসি প্রদেশের রাজধানী পালুতে শুক্রবারের শক্তিশালী ভূমিকম্প ও সুনামির আঘাতে কমপক্ষে ৩০ জন নিহত হয়েছেন। হাসপাতাল সূত্রের বরাত দিয়ে শনিবার স্থানীয় সংবাদমাধ্যম একথা জানিয়েছে। খবর: বাসস
উল্লেখ্য, শুক্রবার ৭ দশমিক ৫ মাত্রার শক্তিশালী ভূমিকম্পের পর পালু শহরে সুনামি আছড়ে পড়ে। বিএমকেজির ভূমিকম্প ও সুনামি বিভাগের প্রধান রাহমাত ত্রিয়োনো বলেন, ‘পালুতে একটা সুনামি হয়ে গেছে।’ ভূমিকম্পের কেন্দ্রস্থল থেকে ৮০ কিলোমিটার দূরে অবস্থিত শহরটিতে প্রায় সাড়ে ৩ লাখ মানুষ বাস করে।
ভূমিকম্পপ্রবণ দেশগুলোর মধ্যে প্রথম সারিতেই রয়েছে ইন্দোনেশিয়া। মাঝেমধ্যেই কেঁপে উঠে এই দ্বীপ রাষ্ট্র। ২০০৪ সালে এখন পর্যন্ত সবচেয়ে বড় ভূমিকম্প এবং তার জেরে সুনামি আছড়ে পড়ে অন্তত ১৩টি দেশে। সব দেশ মিলিয়ে দু’লক্ষেরও বেশি মানুষের মৃত্যু হয় তাতে। শুধু ইন্দোনেশিয়াতেই মৃতের সংখ্যা ছিল ১ লক্ষ ২০ হাজার।
ইন্দোনেশিয়ার মধ্যভাগে সুলাওয়েসি এলাকায় এই ভূমিকম্পের উৎপত্তিস্থল বলে জানা গেছে। মার্কিন জিওলজিক্যাল সার্ভের রিপোর্ট বলছে, মাটি থেকে ১০ কিলোমিটার গভীরে কম্পনের উৎপত্তিস্থল। ডোংগালা শহর থেকে উত্তর-পূর্বে তা ৩৫ কিলোমিটার দূরে অবস্থিত।
শুক্রবার সকালে একই জায়গা ভূমিকম্পে কেঁপে উঠেছিল। তখন রিখটার স্কেলে তীব্রতা ছিল ৬ দশমিক ১। তাতে একজন নিহত হন, ১০ জন আহত হন। বহু বাড়ি কম্পনে ক্ষতিগ্রস্ত হয়।
গত জুলাই ও আগস্ট মাসে পরপর ভূমিকম্পের কারণে ইন্দোনেশিয়ার লুম্বক দ্বীপে ৫০০ জনের বেশি মানুষ মারা যায়। তবে নতুন করে ভূমিকম্পের এলাকা সুলায়েসি দ্বীপ থেকে অনেকটা দূরে অবস্থিত।
ইন্দোনেশিয়া প্রশান্ত মহাসাগরীয় অঞ্চলের ‘রিং অব ফায়ার’ অঞ্চলে অবস্থিত একটি দেশ। এই অঞ্চল বরাবরই ভূমিকম্প প্রবণ।

Developed by: