সর্বশেষ সংবাদ
বিসর্জনের দিন সিলেটে আসনে ‘দেবী’  » «   বিভিন্ন পূজা মণ্ডপ পরিদর্শনে মেয়র আরিফ  » «   সিলেটে স্বয়ংক্রিয় কৃষি-আবহাওয়া স্টেশন স্থাপিত  » «   শীতে ত্বক সজীব রাখতে শাক-সবজি খান  » «   সিলেট ওসমানী বিমানবন্দর সংস্কার হচ্ছে প্রায় ৪ কোটি টাকা ব্যয়ে  » «   কোম্পানীগঞ্জে টাস্কফোর্সের অভিযানে পেলোডার মেশিন জব্দ  » «   ডিজিটাল নিরাপত্তা আইন সংশোধনে সরকারকে নোটিশ  » «   স্যুটকেসের ভিতরে নারী মডেলের মৃতদেহ  » «   ভারতীয় অর্থায়নে বিভিন্ন প্রকল্প পরিদর্শনে সিসিক মেয়র ও ভারতীয় সহকারী হাই কমিশনার  » «   মেসিবিহীন আর্জেন্টিনাকে হারালো ব্রাজিল  » «   নিজ গ্রামে সিলেট-৩ আসনে মনোনয়ন প্রত্যাশী আ.লীগ নেতা মনির হোসাইনের মতবিনিময়  » «   বিশ্বকাপ ক্রিকেটের ট্রফি আজ বাংলাদেশে আসছে, সিলেটে শুক্রবার  » «   সিলেট-৩ আসনে মনোনয়ন প্রত্যাশী শিক্ষাবিদ ও আইনজীবি মনির হোসাইনের মতবিনিময় আজ  » «   জিয়া অরফানেজ ট্রাস্ট মামলার রায় ২৯ অক্টোবর  » «   সনাতন ধর্মালম্বীদের আজ মহাসপ্তমী  » «  

শিল্পা শেঠি বৈষম্যের শিকার!



shilpa-1
প্রান্ত ডেস্ক
বর্ণবিদ্বেষের শিকার শিল্পা শেঠি। সম্প্রতি সিডনি বিমানবন্দরে অস্ট্রেলিয়ার একটি বিমান সংস্থার কর্মীর বিরুদ্ধে বর্ণ বৈষম্যের অভিযোগ আনেন শিল্পা। শুধুমাত্র ত্বকের রঙের কারণেই তার সঙ্গে ওই কর্মী দুর্ব্যবহার করেন বলে অভিযোগ অভিনেত্রীর। ইনস্টাগ্রামে একটি দীর্ঘ পোস্টে নিজের অভিজ্ঞতা শেয়ার করেছেন তিনি। এর আগেও ২০০৭ সালে ইংল্যান্ডের রিয়েলিটি শো সেলিব্রিটি ‘বিগ ব্রাদার’-এ যোগ দিতে গিয়েও শিল্পাকে বর্ণবৈষম্যের শিকার হতে হয়। যদিও সেই শোয়ে জয়ী হয়েছিলেন এই বলিউড অভিনেত্রী।
ইনস্টাগ্রামে শিল্পা লেখেন, সিডনি থেকে মেলবোর্ন যাচ্ছিলেন তিনি। সিডনি বিমানবন্দরে চেক ইনের সময় মেল নামে এক নারী কর্মচারী তার সঙ্গে দুর্ব্যবহার করেন বলে অভিযোগ। শিল্পা প্রতিবাদ জানালে তিনি বলেন, এ রকম ত্বকের রঙের লোকের সঙ্গে এমন ব্যবহারই করতে হয়।’
শিল্পা জানান, তার কাছে দুটো ব্যাগ ছিল। একটি অর্ধেক খালি একটি ব্যাগ দেখিয়ে ওই নারী বলেন, সেটায় নিয়মের থেকে বেশি জিনিস ভরা হয়েছে। এরপর শিল্পা সেই ব্যাগটি নিয়ে অতিরিক্ত ওজনের জন্য বরাদ্দ কাউন্টারে যান। সেখানকার কর্মী বলেন, ব্যাগে মোটেই বেশি জিনিস নেই, তিনি তা নিয়ে যেতে পারেন।
এরপর ফের শিল্পা ওই কর্মীর কাছে গিয়ে তার ব্যাগকে ছাড়পত্র দেওয়ার অনুরোধ করায় ওই কর্মী বলেন, ব্যাগের ভার অতিরিক্ত নয়। তবে তিনি কোনোরকম সহযোগিতা করবেন না। শিল্পার কাছে সময় না থাকায় ফের অতিরিক্ত ওজনের কাউন্টারে যান তিনি। আবারও তাকে বলা হয়, তার ব্যাগের ভার অতিরিক্ত নয়, তিনি তা নিয়ে যেতে পারেন। এরপর তিনি মেল নামে ওই কর্মীর আচরণের বিষয়ে সেখানে জানালে ব্যাগটি ছেড়ে দেওয়া হয় কাউন্টার থেকে।
শিল্পা তার পোস্টে লিখেছেন, সংশ্লিষ্ট বিমানসংস্থাকে এ ব্যাপারে সচেতন করতে চান তিনি। যাতে তারা কর্মীদের যাত্রী পরিষেবার ব্যাপারে আর একটু সহনশীল হওয়ার শিক্ষা দিতে পারে। ত্বকের রঙের ভিত্তিতে বৈষম্য করা অন্যায়।
শিল্পা লেখেন, সংস্থার জানা উচিত, অসংবেদনশীলতা ও দুর্ব্যবহার কখনোই বরদাস্ত করা হবে না। পোস্টে নিজের ব্যাগের ছবিও শেয়ার করেছেন তিনি।

Developed by: