সর্বশেষ সংবাদ
ফেঞ্চুগঞ্জ ইউনিয়ন ছাত্রদলের কমিটি : ঘোষণা উপজেলার, বাতিল জেলার  » «   ক্রীড়া সংগঠক আব্দুল কাদিরের মায়ের ইন্তেকাল  » «   রণবীর-দীপিকা বিয়ে নভেম্বরে?  » «   যাদুকর ম্যারাডোনার পায়ের অবস্থা করুণ  » «   একটু আগেবাগেই শীতের আগমণ  » «   চট্টগ্রামে আইয়ুব বাচ্চুর জানাযা বাদ আছর  » «   রাবণ পোড়ানো দর্শনকারী ভিড়ের উপর দিয়ে ছুটে গেলো ট্রেন : নিহত ৬০  » «   গোলাপঞ্জে ফায়ার সার্ভিস ও সিভিল ডিফেন্স স্টেশন উদ্বোধন করলেন শিক্ষামন্ত্রী  » «   বিসর্জনের দিন সিলেটে আসনে ‘দেবী’  » «   বিভিন্ন পূজা মণ্ডপ পরিদর্শনে মেয়র আরিফ  » «   সিলেটে স্বয়ংক্রিয় কৃষি-আবহাওয়া স্টেশন স্থাপিত  » «   শীতে ত্বক সজীব রাখতে শাক-সবজি খান  » «   সিলেট ওসমানী বিমানবন্দর সংস্কার হচ্ছে প্রায় ৪ কোটি টাকা ব্যয়ে  » «   কোম্পানীগঞ্জে টাস্কফোর্সের অভিযানে পেলোডার মেশিন জব্দ  » «   ডিজিটাল নিরাপত্তা আইন সংশোধনে সরকারকে নোটিশ  » «  

মেসি’র বিস্ময়কর কাণ্ড



15378105088909
প্রান্ত ডেস্ক
উয়েফার বর্ষসেরা পুরস্কারের মতো ফিফা বর্ষসেরা ফুটবলারের (দ্য বেস্ট) পুরস্কারটাও জিতে নিয়েছেন লুকা মড্রিচ। ক্যারিয়ারে প্রথম বারের মতো এই পুরস্কার জিততে রিয়াল মাদ্রিদের ক্রোয়েশিয়ান মিডফিল্ডার হারিয়েছেন ক্রিস্তিয়ানো রোনালদো ও মোহাম্মদ সালাহকে। উয়েফা পুরস্কারের মতো ফিফা পুরস্কারের ভোটেও দ্বিতীয় হয়েছেন রোনালদো, সালাহ তৃতীয়। তবে এবার ফিফা পুরস্কারের ভোটাভুটিতে ঘটে গেছে বিস্ময়কর এক কাণ্ড। সেই অবাক-কাণ্ডটি ঘটিয়েছেন লিওনেল মেসি। বার্সেলোনার আর্জেন্টাইন তারকা প্রথম বারের মতো ভোট দিয়েছেন চিরপ্রতিদ্বন্দ্বী ক্রিস্তিয়ানো রোনালদোকে!
২০১১ সাল থেকে আর্জেন্টিনা জাতীয় দলের অধিনায়ক মেসি। সেই থেকেই ফিফা পুরস্কারের জন্য ভোট দিয়ে আসছেন তিনি। কিন্তু ভোটাধিকার প্রাপ্তির প্রথম ৬ বছরে কখনোই প্রতিদ্বন্দ্বী রোনালদোর বাক্সে তার ভোট পড়েনি! প্রতিবারই তিনি ভোট দিয়েছেন ক্লাব বার্সেলোনা ও আর্জেন্টিনার জাতীয় দল সতীর্থদের। একইভাবে রোনালদোও কখনো ভোট দেননি মেসিকে। একে অন্যকে ভোট ‘না’ দেওয়ার একটা ঐতিহ্যই গড়ে তুলেছিলেন তারা। নিজেদের বানানো সেই এবার ভেঙে ফেলেছেন মেসি। দেখিয়েছেন প্রতিদ্বন্দ্বী রোনালদোকে দেওয়ার মহা উদারতা।
অবশ্য মেসির ভোটে রোনালদোর প্রাপ্তির খাতায় যোগ হয় মাত্র ১ পয়েন্ট। মেসি যে রোনালদোকে ভোটটা দিয়েছেন তৃতীয় পছন্দ হিসেবে। ফিফার নিয়ম অনুযায়ী বিভিন্ন দেশের জাতীয় দলের অধিনায়কেরা মোট তিনজনকে ভোট দিতে পারেন। প্রথম পছন্দের ভোটের জন্য ৩ পয়েন্ট, দ্বিতীয় পছন্দের ভোটের জন্য ২ পয়েন্ট ও তৃতীয় পছন্দের ভোটের জন্য বরাদ্দ ১ পয়েন্ট।
এবারের ভোটাভুটিতে মেসি রোনালদোকে তৃতীয় পছন্দ হিসেবেই বেছে নিয়েছিলেন। অন্য অনেকের মতো মেসির প্রথম পছন্দের ভোটটিও পেয়েছেন বিজয়ী লুকা মড্রিচ। মেসি দ্বিতীয় পছন্দের ভোটটি দিয়েছিলেন আর্জেন্টিনার বিশ্বকাপ স্বপ্নকে গুঁড়িয়ে দেওয়া ফ্রান্সের তরুণ বিস্ময় কিলিয়ান এমবাপেকে।
মানে মেসির মতে, এবার মড্রিচই সেরা। দ্বিতীয় সেরা এমবাপে, রোনালদো তৃতীয় সেরা। কিন্তু সব মিলে ভোটাভুটিতে রোনালদো হয়েছেন দ্বিতীয়। মেসি তৃতীয় পছন্দের ভোট দেওয়ায় রোনালদো ভক্তদের মন খারাপ হয়, তাহলে তাদের এটাও মনে রাখা দরকার, মেসি-ভক্তদের ক্ষোভটা আরও বেশি! কারণ, রোনালদো মেসিকে ভোটই দেননি। ভোটাধিকার প্রাপ্তির পর গত ৭ বছরে মেসি কাকে কাকে ভোট দিয়েছেন, পরিবর্তন পাঠকদের জন্য তা নিচে তুলে ধরা হলো।
বছরওয়ারি মেসির ভোট
২০১২ : আন্দ্রেস ইনিয়েস্তা, জাভি, সার্জিও আগুয়েরো।
২০১৩ : ইনিয়েস্তা, জাভি, নেইমার
২০১৪ : অ্যাঙ্গেল ডি মারিয়া, ইনিয়েস্তা, হাভিয়ের মাচেরানো
২০১৫ : লুইস সুয়ারেজ, নেইমার, ইনিয়েস্তা
২০১৬ : সুয়ারেজ, নেইমার, ইনিয়েস্তা
২০১৭ : সুয়ারেজ, ইনিয়েস্তা, নেইমার
২০১৮ : লুকা মড্রিচ, কিলিয়ান এমবাপে, ক্রিস্তিয়ানো রোনালদো
মানে প্রথম ৬ বছরেই তিনি শুধু ক্লাব বার্সেলোনা ও আর্জেন্টিনার জাতীয় দল সতীর্থদের ভোট দিয়েছেন। আর এবার তার ৩টি ভোটই পেয়েছেন বার্সেলোনা ও আর্জেন্টিনা জাতীয় দলের বাইরের খেলোয়াড়দের!
এটা বলতেই হবে, এবার ভোট দেওয়ার বিষয়ে মেসি অবিশ্বাস্য নিরপেক্ষতা দেখিয়েছেন।

Developed by: