সর্বশেষ সংবাদ
খালেদার চিকিৎসা বিষয়ক রিটের শুনানি ১ অক্টোবর  » «   হবিগেঞ্জ প্রবাসীর বাড়িতে ডাকাতি : হামলায় নারী আহত  » «   শিল্পা শেঠি বৈষম্যের শিকার!  » «   মেসি’র বিস্ময়কর কাণ্ড  » «   মাছের পেটে ৬১৪ পিস ইয়াবা!  » «   সিলেটে বসছে আন্তর্জাতিক ফুটবলের আসর  » «   নিজের ছবির নায়িকা রিয়া চক্রবর্তীর সঙ্গে মহেশ ভাটরিয়া চক্রবর্তী ঘনিষ্ঠ!  » «   এএফসি অনূর্ধ্ব-১৬ নারী চ্যাম্পিয়নশিপ : ভিয়েতনামকে হারিয়ে গ্রুপসেরা বাংলাদেশের মেয়েরা  » «   বিসিবির প্রধান নির্বাচক নান্নুর বাসায় চুরি  » «   ঢাকায় সামার ওপেন ব্যাডমিন্টন প্রতিযোগিতার সুপার সিক্সটিন পর্ব : সিলেটী-সিলেটী লড়াই  » «   আটক চার ছাত্রদল নেতার বিরুদ্ধে রিমান্ড আবেদন নামঞ্জুর  » «   জগন্নাথপুরের রুহুল আমিন ইতালিতে দুর্বৃত্তদের হামলায় নিহত  » «   জিয়াদের পরিবারকে খুঁজছে সিলেট কোতোয়ালি পুলিশ  » «   বন্য হাতির আক্রমণে কুলাউড়ার যুবদল নেতার মৃত্যু  » «   এ কী বললেন পপি!!!  » «  

ইলেকট্রনিক ভোটিং মেশিন হ্যাক করা অত্যন্ত সহজ!



Children-hack-EVM1
প্রান্ত ডেস্ক
ইলেকট্রনিক ভোটিং মেশিন (ইভিএম) হ্যাক করা সম্ভব কিনা তা নিয়ে বিতর্কের মধ্যেই নভেম্বরের মধ্যবর্তী নির্বাচনে ‘তথ্য যুদ্ধ’ নিয়ে চিন্তিত হয়ে পড়েছেন যুক্তরাষ্ট্রের নির্বাচন কর্মকর্তারা।
একটি প্রতিবেদনে মার্কিন সংবাদমাধ্যম সিএনএন জানিয়েছে, গত সপ্তাহের শেষে যুক্তরাষ্ট্র ‘ডেফ কন হ্যাকার কনভেনশন বা প্রতিরক্ষা ব্যবস্থার হ্যাকারদের’ সম্মেলন আয়োজন করে।
ইলেকট্রনিক ভোটিং মেশিনসহ নির্বাচনে ব্যবহৃত বিভিন্ন যন্ত্র ও ওয়েবসাইটের ত্রুটি সনাক্ত করতে হ্যাকারদের এই সম্মেলন আয়োজন করে কর্তৃপক্ষ।
হ্যাকাররা ভোটিং মেশিনকে কতভাবে কব্জা করতে পারে এই সম্মেলনে তাই দেখেন যুক্তরাষ্ট্রের জাতীয় ও রাজ্য পর্যায়ের নির্বাচন কর্মকর্তারা।
একজন হ্যাকার ভোটিং মেশিনকে একটা জুকবক্স অর্থাৎ গানের বাক্সে পরিণত করে, যেটা গান বাজাতে এবং এনিমেশন প্রদর্শন করতে পারে, বলা হয় সিএনএনের প্রতিবেদনে।
এভাবে হ্যাক হয়ে যাওয়া নিয়ে নির্বাচন কর্মকর্তারা চিন্তিত থাকলেও, তারা ভোটিং মেশিন ও ভোটিং ডাটাবেজ ছাড়াও ভুল তথ্যের ঝুঁকির বিষয়টিকে আরও বেশি খতিয়ে দেখছেন।
ওই সম্মেলনে প্রায় ৪০ জন শিশু হ্যাকার ইলেকশন বোর্ডের একটি মেকি ওয়েবসাইটে ভোটের সংখ্যা পরিবর্তন করতে সক্ষম হয়। কয়েকজন হ্যাকার প্রার্থীদের নাম বদলে রাখেন ‘বব ডা বিল্ডার’ এবং ‘রিচার্ড নিক্সন’স হেড (রিচার্ড নিক্সনের মুণ্ডু)’।
ক্যালিফোর্নিয়ার সেক্রেটারি অব স্টেট অ্যালেক্স প্যাডিলা বলেন, ‘আমাদের নির্বাচনগুলো নিয়ে সবসময়ই একটা উদ্বেগ ছিল। এছাড়া প্রচারণার সময় ভুল তথ্য ও মিথ্যা ছড়ানোর বিষয়েও একটা উদ্বেগ থাকে।’
প্যাডিলা মনে করেন, সামাজিক মাধ্যমের কারণে এবছর ভুল তথ্যের ঝুঁকি আরও বৃদ্ধি পেয়েছে।
এবার, সম্মেলনে প্রদর্শিত একটি নতুন ইভিএম ২০১৮ সালের মধ্যবর্তী নির্বাচনে ব্যবহার করা হবে।
এদিকে ভারতের সংবাদমাধ্যম এনডিটিভি জানায়, ভারতে ইভিএমের সুরক্ষা ব্যবস্থা নিয়ে তীব্র বিতর্ক চলছে।

Developed by: