সর্বশেষ সংবাদ
এ্যাকশনে পুননির্বাচিত আরিফ  » «   ঈদের আগে খালেদা জিয়ার মুক্তি দাবি করেছে বিএনপি  » «   সমকাল সম্পাদককে শেষ শ্রদ্ধা  » «   অনবদ্য তামিম ইকবাল  » «   ওরা এখনো নজরকাড়া  » «   শাবিপ্রবি’র হল বন্ধ  » «   সিলেটে ২১ আগষ্ট থেকে ৫ দিন বন্ধ বিদ্যুতের প্রিপেইড মিটার রিচার্জ  » «   ইকুয়েডরে সড়ক দুর্ঘটনায় ২৪ জন নিহত  » «   ইলেকট্রনিক ভোটিং মেশিন হ্যাক করা অত্যন্ত সহজ!  » «   সারা’র রুপে মুগ্ধ সবাই  » «   আবারও সিলেটে অনুষ্ঠিত হবে বঙ্গবন্ধু কাপ  » «   সিলেটে বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে শ্রদ্ধাঞ্জলি  » «   প্রতিদ্বন্দ্বি যখন যমজ বোন  » «   বিএনপি নির্বাচন বানচালের চক্রান্ত করছে : কাদের  » «   পঁচাত্তরে যেমন ছিল বাংলাদেশ  » «  

তাকে ভুল না বুঝার অনুরোধ জানালেন সাকিব



62393
প্রান্ত ডেস্ক
নিরাপদ সড়কের দাবিতে আন্দোলন করা শিক্ষার্থীদের ঘরে ফেরার আহ্বান করে নিজের ফেসবুক পেজে একটি বার্তা দেন সাকিব আল হাসান। তাতে বাংলাদেশ টেস্ট এবং টি২০ অধিনায়ক জানান, তিনি দিয়া এবং আবদুল করিমের নিহত হওয়ার ঘটনায় মর্মাহত হয়েছেন। তবে মাননীয় প্রধানমন্ত্রী যেহেতু নিরাপদ সড়ক আইন করতে আন্তরিকভাবে কাজ করছেন তাই শিক্ষার্থীদের পড়ার টেবিলে ফিরে যাওয়ার অনুরোধ করেন তিনি। এ নিয়ে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে সাকিব বেশ সমালোচনার শিকার হয়েছেন। আর তাই তাকে ভুল না বোঝার অনুরোধ করে নিজের ফেসবুক পেজে আবার একটি বার্তা দিয়েছেন তিনি।
বাংলাদেশ অধিনায়ক তার নতুন পোস্টে লেখেন, ‘আমার সকল ভক্তদের জানাচ্ছি যে আপনারা হয়তো আমার ব্যাক্ত করা কথায় আমাকে ভুল বুঝছেন। দয়া করে আমাকে ভুল বুঝবেন না, আমারও আপনাদের সবার মতো পরিবার আছে, যাদের নিরাপত্তা আমার কাছেও অনেক বেশি মুল্যবান। আমি আপনাদেরই একজন, আমি সব সময় আপনাদের সাথে ছিলাম, আছি এবং কথা দিচ্ছি ভবিষ্যতেও থাকব।
আমি শুধু বলতে চাই যে আপনাদের আন্দোলনকে একটি সঠিক ফলাফলে পৌছে দেয়ার জন্যে আমাদের সরকারকে সুযোগ দেয়া উচিত যেন সরকার খুব দ্রুত আপনাদের দাবি বাস্তবায়ন করতে পারে।’
এর আগের পোস্টে সাকিব লেখেন, ‘আমি এখন ফ্লোরিডায় আছি। আজ এক গুরুত্বপূর্ণ মুহূর্তে আমার তরুণ ফ্যানদের উদ্দেশে কিছু বলতে চাই। গত ২৯ জুলাই রাজধানীর বিমানবন্দর সড়কে বাসচাপায় দুই স্কুল শিক্ষার্থী দিয়া ও আবদুল করিম নিহত হওয়ার ঘটনায় আমি প্রচন্ড মর্মাহত ছিলাম। কিন্তু যখন দেখলাম তার সহপাঠী থেকে শুরু করে সারা দেশের ছাত্রছাত্রীরা দোষীদের শাস্তি ও নিরাপদ সড়কের দাবিতে আন্দোলন শুরু করেছে, তখন গর্ববোধ করেছি বাংলাদেশের একজন নাগরিক হিসেবে। দেশে থাকলে আমিই তোমাদের অটোগ্রাফ নেওয়ার জন্য চলে আসতাম।
তোমাদের সাধুবাদ জানিয়ে বলতে চাই, তোমাদের দাবি কার্যকর হচ্ছে। মাননীয় প্রধানমন্ত্রী নিহত পরিবারকে আর্থিক সহায়তা ছাড়াও নিরাপদ সড়ক আইন করতে আন্তরিকভাবে কাজ করছেন। ইতিমধ্যে অভিযুক্ত পরিবহনের রুট পারমিট বাতিলসহ পাঁচজনকে গ্রেফতার করা হয়েছে। এ অবস্থায় তোমাদের কাছে বিনীত অনুরোধ করব, ক্লাসে ফিরে পড়াশুনায় মনোনিবেশ করতে। তোমরা যা করেছ, তা এ দেশে ইতিহাস হয়ে থাকবে। এ অর্জন সফল হবে তোমাদের পড়ার টেবিলে ফিরে যাওয়ার মাধ্যমে। তোমাদের দাবি পূরণ হয়েছে এবং হচ্ছে। ব্যত্যয় ঘটলে আমাকে পাবে তোমাদের সাথে।’

Developed by: