সর্বশেষ সংবাদ
এ্যাকশনে পুননির্বাচিত আরিফ  » «   ঈদের আগে খালেদা জিয়ার মুক্তি দাবি করেছে বিএনপি  » «   সমকাল সম্পাদককে শেষ শ্রদ্ধা  » «   অনবদ্য তামিম ইকবাল  » «   ওরা এখনো নজরকাড়া  » «   শাবিপ্রবি’র হল বন্ধ  » «   সিলেটে ২১ আগষ্ট থেকে ৫ দিন বন্ধ বিদ্যুতের প্রিপেইড মিটার রিচার্জ  » «   ইকুয়েডরে সড়ক দুর্ঘটনায় ২৪ জন নিহত  » «   ইলেকট্রনিক ভোটিং মেশিন হ্যাক করা অত্যন্ত সহজ!  » «   সারা’র রুপে মুগ্ধ সবাই  » «   আবারও সিলেটে অনুষ্ঠিত হবে বঙ্গবন্ধু কাপ  » «   সিলেটে বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে শ্রদ্ধাঞ্জলি  » «   প্রতিদ্বন্দ্বি যখন যমজ বোন  » «   বিএনপি নির্বাচন বানচালের চক্রান্ত করছে : কাদের  » «   পঁচাত্তরে যেমন ছিল বাংলাদেশ  » «  

উনার মামলাগুলোতে আরো মনোযোগী হোন এবং কাজে সমন্বয় আনুন : খালেদার পুত্রবধূ শর্মিলা



sharmila_koko
প্রান্ত ডেস্ক :
বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার ছোট ছেলে প্রয়াত আরাফাত রহমান কোকোর স্ত্রী শর্মিলা রহমান সিঁথি লন্ডন ফিরে গেছেন। তার সঙ্গে ছিলেন দুই কন্যা জাফিয়া রহমান এবং জাকিয়া রহমান। রোববার সকাল ৮টায় এমিরেটস এয়ারলাইন্সের একটি বিমানে তিনি লন্ডনের উদ্দেশে রওনা দেন।
গত ২৯ মার্চ শর্মিলা রহমান দেশে এসে যে ১৮ দিন অবস্থান করেন তারমধ্যে মোট পাঁচবার তিনি তার শাশুড়ি খালেদা জিয়ার সঙ্গে দেখা করেন। এর মধ্যে চারবার দেখা হয় কারাগারে আর একবার দেখা হয় বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয় হাসপাতালে। সব মিলিয়ে কারাভোগরত খালেদা জিয়ার সঙ্গে প্রায় ১০ ঘণ্টা কাটিয়েছেন তিনি।
লন্ডনে আছেন খালেদা জিয়ার বড় ছেলে বিএনপির ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক রহমান। লন্ডনে ফিরে গিয়ে তার সঙ্গে দেখা হবে শর্মিলার। শর্মিলার ফিরে যাওয়াতে বিএনপিতে দিনভরই আলোচনায় ছিল- বড় ছেলের কাছে কী বার্তা পাঠিয়েছেন খালেদা জিয়া।
শর্মিলা দেশে আসার পর কিছু গণমাধ্যমের খবরের পাশাপাশি গুঞ্জন ছিল ছোট পুত্রবধূর সঙ্গে খালেদা জিয়া লন্ডন চলে যেতে পারেন। শর্মিলা বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলামকে সরিয়ে দায়িত্ব নিতে এসেছেন বলেও এক পর্যায়ে খবর রটে। তবে বিএনপি সূত্র তখন দু’টি বিষয়ই সরাসরি নাকচ করে দেয়।
জানা গেছে, শনিবার পয়লা বৈশাখের দিন শর্মিলা দুই কন্যাসহ খালেদা জিয়ার সঙ্গে শেষবার দেখা করেন। দেশে অবস্থানের সময় তিনি কোনো বিএনপি নেতাকর্মীর সঙ্গে দেখা করেননি।
তবে ঘটনাক্রমে খালেদা জিয়ার কয়েকজন আইনজীবীর সঙ্গে দেখা হয় শর্মিলার। সেখানে উপস্থিত বিএনপির একটি বিশ্বস্ত সূত্র নাম প্রকাশ না করার শর্তে জানায়, শর্মিলা আইনজীবীদের বলেন-‘আমি রাজনীতি করি না। তিনি (খালেদা) আমার শাশুড়ি হলেও আপনাদের মা। আমি অনুরোধ করি, উনার মামলাগুলোতে আরো মনোযোগী হোন এবং কাজে সমন্বয় আনুন।’
শর্মিলা কোনো বিশেষ বার্তা নিয়ে গেছেন কিনা সে বিষয়ে বিএনপির দায়িত্বশীল কোনো নেতা সরাসরি কথা বলতে চাননি। তবে শর্মিলার সঙ্গে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল হাসপাতালসহ বিভিন্ন জায়গায় দেখা হয়েছে খালেদা জিয়ার ব্যক্তিগত কর্মকর্তাদের।
জানতে চাইলে বিএনপি চেয়ারপারসনের প্রেস উইং কর্মকর্তা শায়রুল কবীর খান গণমাধ্যমকে বলেন, হাসপাতালে দুই নাতনিকে বারবার কাছে টেনে আদর করেছেন ম্যাডাম। পুত্রবধূর সঙ্গে কথা বলেছেন।

Developed by: