সর্বশেষ সংবাদ
ইলিয়াছ আলীর গাড়ি চালক আনসার আলীর মা-মেয়ে আজও অপেক্ষায়  » «   কোটা সংস্কার আন্দোলনকারীদের সংবাদ সম্মেলন : সাত দিনের মধ্যে মামলা প্রত্যাহার না করলে ক্লাস বর্জন  » «   ‘করের আওতায় আনা হবে সিএনজি অটোরিকশা মালিকদের’  » «   দীর্ঘ ২৫টি বছর পর…  » «   অবশেষে আরব আমিরাতে খুলেছে বাংলাদেশের শ্রমবাজার  » «   বালাগঞ্জে ‘দেশরত্ন শেখ হাসিনা সেতু’র ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন  » «   দক্ষিণ সুরমায় জোড়া খুনের মামলায় ৪৯ জন কারাগারে : ২ জনের জামিন  » «   প্রেমের টান বড় জোরদার : যুক্তরাষ্ট্র থেকে ফরিদপুর  » «   অর্ধ মানুষরূপী এটা কি?  » «   ফের আলোচনায় ডিআইজি মিজান : সংবাদ পাঠিকাকে ৬৪ টুকরো করার হুমকি  » «   গোলাপগঞ্জে হামলার শিকার তরুণের মৃত্যু  » «   সাবেক মার্কিন ফার্স্ট লেডি বারবারা বুশ নেই  » «   ৪০ গুণ বেশি দামে বিক্রি হচ্ছে ফুটবল বিশ্বকাপের টিকেট!  » «   প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা লন্ডনে পৌঁছেছেন  » «   চাঁদ দেখা কমিটির বৈঠক আজ  » «  

বঙ্গোপসাগরের কাছে ভারত-মিয়ানমার যৌথ মহড়া



Naval Exercise main
প্রান্ত ডেস্ক
বঙ্গোপসাগরের অদূরে সাগরে শক্তিবৃদ্ধির জন্য দুই প্রতিবেশী দেশ ভারত ও মিয়ানমার যৌথ সামরিক মহড়ার আয়োজন করেছে। গত ২৫ মার্চ থেকে দুই ভাগে এই মহড়া অনুষ্ঠিত হচ্ছে। প্রথম দফায় পোতাশ্রয়ে গত ২৫ মার্চ থেকে মহড়া শুরু হয়েছে, চলবে ৩০ মার্চ পর্যন্ত। এরপর ৩১ মার্চ থেকে দ্বিতীয় ধাপে সাগরে মহড়া চালাবে দুই দেশের নৌবাহিনী। যা শেষ হবে ৩ এপ্রিল।
সাগরে মহড়ার অংশ হিসেবে গত ২৫ মার্চ মিয়ানমারের দুই যুদ্ধজাহাজ ও ফ্রিগেটসহ দেশটির নৌবাহিনীর সদস্যরা ভারতের পূর্ব উপকূলীয় বিশাখাপত্তমে এসে পৌঁছায়। পারস্পরিক বোঝাপড়া ও সম্পর্ক জোরদার ছাড়াও সাগরে দুই দেশের শক্তি বৃদ্ধির অংশ হিসেবে এই যৌথ মহড়া অনুষ্ঠিত হচ্ছে বলে প্রতিবেদনে বলা হয়।
মিয়ানমারের ফ্রিগেট আর যুদ্ধজাহাজের বিপরীতে ভারতীয় নৌবাহিনীর থাকবে অ্যান্টি সাবমেরিন ফ্রিগেট, এন্টি-সাবমেরিন কর্ভেট, হেলিকপ্টার, জাহাজ থেকে উড্ডয়নযোগ্য যুদ্ধবিমান এবং সাবমেরিন। প্রত্যক্ষ যৌথ মহড়ার পাশাপাশি বন্দর নিরাপত্তার সাম্প্রতিক পরিস্থিত পর্যালোচনা ও পরবর্তী কৌশল নির্ধারণ করবে দু’দেশের নৌবাহিনীর অংশগ্রহণকারী সদস্যরা।
এদিকে, মহান স্বাধীনতা ও জাতীয় দিবস উপলক্ষ্যে বাংলাদেশ সেনাবাহিনীর সঙ্গেও যৌথ অভিযানের আয়োজন করে ভারতীয় সেনাবাহিনী। গত ২৬ মার্চ রংপুর সেনানিবাসে বাংলাদেশ-ভারত যৌথ সাইক্লিং অভিযানের সমাপনী অনুষ্ঠান হয়। গত ১২ মার্চ দু’দেশের সেনাবাহিনীর সদস্যরা যশোর সেনানিবাস থেকে এই অভিযান শুরু করে।
সাইক্লিস্ট সেনারা কলকাতা-বর্ধমান-পলাশী-রামকান্তপুর-মালদা-রায়গঞ্জ-কিসানগঞ্জ-শিলিগুড়ি-জলপাইগুড়ি-বিন্নাগুড়ি-কুচবিহার-বুড়িমারী ইত্যাদি স্থান ঘুরে গত ২৬শে মার্চ সকালে রংপুর সেনানিবাসে এসে অভিযান শেষ করে। এতে বাংলাদেশ ও ভারতের মোট ৩০ জন সাইক্লিস্ট সেনা সদস্য অংশ নেন।

Developed by: