সর্বশেষ সংবাদ
রাজ-শুভশ্রী এক বাঁধনে  » «   বাংলাদেশ নতুন যুগে প্রবেশ করেছে : প্রধানমন্ত্রী  » «   আগাম বন্যার আশঙ্কা  » «   ঈদে আসছে ‘আমার প্রেম আমার প্রিয়া’  » «   বজ্রপাতে একদিনে সারাদেশে ৩০ জনের মৃত্যু  » «   জাতীয় অধ্যাপক মুস্তাফা নূরউল ইসলামের ইন্তেকাল  » «   জাতিসংঘ মিশন : সিলেটের ২০০ স্বপ্নবাজ তরুণের নেতৃত্বে হাওরসন্তান সোহাগ  » «   বিয়ানীবাজারে বুদ্ধি প্রতিবন্ধি যুবতীকে ধর্ষণের অভিযোগে যুবক গ্রেফতার  » «   বিবাহবন্ধনে আবদ্ধ হচ্ছেন সোনম কাপুর আর আনন্দ আহুজা  » «   এসএসসি ফল পুনঃনিরীক্ষন শুরু : একাদশে ভর্তি ১৩ মে থেকে  » «   ষাঁড়ের গুতোয় কৃষকের মৃত্যু  » «   পা-ই তার সাফল্যের চাবিকাটি  » «   গাছ ভেঙে পড়ায় সিলেটের সাথে রেল যোগাযোগ বন্ধ  » «   এসএসসিতে সিলেটে পাস ৭০.৪২% : জিপিএ-৫ ৩১৯১ জন  » «   নিয়োগ চলছে কামা পরিবহন (প্রা. লি.)-এ।  » «  

বঙ্গোপসাগরের কাছে ভারত-মিয়ানমার যৌথ মহড়া



Naval Exercise main
প্রান্ত ডেস্ক
বঙ্গোপসাগরের অদূরে সাগরে শক্তিবৃদ্ধির জন্য দুই প্রতিবেশী দেশ ভারত ও মিয়ানমার যৌথ সামরিক মহড়ার আয়োজন করেছে। গত ২৫ মার্চ থেকে দুই ভাগে এই মহড়া অনুষ্ঠিত হচ্ছে। প্রথম দফায় পোতাশ্রয়ে গত ২৫ মার্চ থেকে মহড়া শুরু হয়েছে, চলবে ৩০ মার্চ পর্যন্ত। এরপর ৩১ মার্চ থেকে দ্বিতীয় ধাপে সাগরে মহড়া চালাবে দুই দেশের নৌবাহিনী। যা শেষ হবে ৩ এপ্রিল।
সাগরে মহড়ার অংশ হিসেবে গত ২৫ মার্চ মিয়ানমারের দুই যুদ্ধজাহাজ ও ফ্রিগেটসহ দেশটির নৌবাহিনীর সদস্যরা ভারতের পূর্ব উপকূলীয় বিশাখাপত্তমে এসে পৌঁছায়। পারস্পরিক বোঝাপড়া ও সম্পর্ক জোরদার ছাড়াও সাগরে দুই দেশের শক্তি বৃদ্ধির অংশ হিসেবে এই যৌথ মহড়া অনুষ্ঠিত হচ্ছে বলে প্রতিবেদনে বলা হয়।
মিয়ানমারের ফ্রিগেট আর যুদ্ধজাহাজের বিপরীতে ভারতীয় নৌবাহিনীর থাকবে অ্যান্টি সাবমেরিন ফ্রিগেট, এন্টি-সাবমেরিন কর্ভেট, হেলিকপ্টার, জাহাজ থেকে উড্ডয়নযোগ্য যুদ্ধবিমান এবং সাবমেরিন। প্রত্যক্ষ যৌথ মহড়ার পাশাপাশি বন্দর নিরাপত্তার সাম্প্রতিক পরিস্থিত পর্যালোচনা ও পরবর্তী কৌশল নির্ধারণ করবে দু’দেশের নৌবাহিনীর অংশগ্রহণকারী সদস্যরা।
এদিকে, মহান স্বাধীনতা ও জাতীয় দিবস উপলক্ষ্যে বাংলাদেশ সেনাবাহিনীর সঙ্গেও যৌথ অভিযানের আয়োজন করে ভারতীয় সেনাবাহিনী। গত ২৬ মার্চ রংপুর সেনানিবাসে বাংলাদেশ-ভারত যৌথ সাইক্লিং অভিযানের সমাপনী অনুষ্ঠান হয়। গত ১২ মার্চ দু’দেশের সেনাবাহিনীর সদস্যরা যশোর সেনানিবাস থেকে এই অভিযান শুরু করে।
সাইক্লিস্ট সেনারা কলকাতা-বর্ধমান-পলাশী-রামকান্তপুর-মালদা-রায়গঞ্জ-কিসানগঞ্জ-শিলিগুড়ি-জলপাইগুড়ি-বিন্নাগুড়ি-কুচবিহার-বুড়িমারী ইত্যাদি স্থান ঘুরে গত ২৬শে মার্চ সকালে রংপুর সেনানিবাসে এসে অভিযান শেষ করে। এতে বাংলাদেশ ও ভারতের মোট ৩০ জন সাইক্লিস্ট সেনা সদস্য অংশ নেন।

Developed by: