সর্বশেষ সংবাদ
ফেঞ্চুগঞ্জ ইউনিয়ন ছাত্রদলের কমিটি : ঘোষণা উপজেলার, বাতিল জেলার  » «   ক্রীড়া সংগঠক আব্দুল কাদিরের মায়ের ইন্তেকাল  » «   রণবীর-দীপিকা বিয়ে নভেম্বরে?  » «   যাদুকর ম্যারাডোনার পায়ের অবস্থা করুণ  » «   একটু আগেবাগেই শীতের আগমণ  » «   চট্টগ্রামে আইয়ুব বাচ্চুর জানাযা বাদ আছর  » «   রাবণ পোড়ানো দর্শনকারী ভিড়ের উপর দিয়ে ছুটে গেলো ট্রেন : নিহত ৬০  » «   গোলাপঞ্জে ফায়ার সার্ভিস ও সিভিল ডিফেন্স স্টেশন উদ্বোধন করলেন শিক্ষামন্ত্রী  » «   বিসর্জনের দিন সিলেটে আসনে ‘দেবী’  » «   বিভিন্ন পূজা মণ্ডপ পরিদর্শনে মেয়র আরিফ  » «   সিলেটে স্বয়ংক্রিয় কৃষি-আবহাওয়া স্টেশন স্থাপিত  » «   শীতে ত্বক সজীব রাখতে শাক-সবজি খান  » «   সিলেট ওসমানী বিমানবন্দর সংস্কার হচ্ছে প্রায় ৪ কোটি টাকা ব্যয়ে  » «   কোম্পানীগঞ্জে টাস্কফোর্সের অভিযানে পেলোডার মেশিন জব্দ  » «   ডিজিটাল নিরাপত্তা আইন সংশোধনে সরকারকে নোটিশ  » «  

সিসিক নির্বাচন নিয়ে সংশয়ে নগরবাসী



image-96357-1503149904
নাছির আহমদ খান :
সিলেটসহ ৫ সিটি কর্পোরেশন নির্বাচন আগামী জুলাই মাসের মধ্যে সম্পন্ন করতে উদ্যোগ নিয়েছে নির্বাচন কমিশন। সরকারের কাছ থেকে গ্রিন সিগন্যাল পেলে তফসিল ঘোষণা করা হবে। জাতয়ি নির্বাচনের ৭/৮ মাস আগে সরকার সিটি কর্পোরেশন নির্বাচন আদৌ করবে কি না তা নিয়ে সংশয়ে আছেন রাজনৈতিক দলসহ সিলেট নগরবাসী। তারা মনে করছেন- বিএনপি চেয়ারপার্সন খালেদা জিয়া কারাগারে। তাকে মুক্ত করতে বিএনপি আন্দোলন-সংগ্রাম নিয়ে ব্যস্ত রয়েছে। সরকার বিএনপির আন্দেলনকে বানচাল করতে এ মুহূর্তে সিটি নির্বাচন দিলে বিএনপি নেত্রীর কারামুক্তির আন্দোলনে ভাটা পড়বে। তাছাড়া ধরপাকড়তো রয়েছে। নেতাকর্মীরা মামলা ও আন্দোলন নিয়ে ব্যস্ত থাকলে আওয়ামী লীগ প্রার্থী জয়লাভ করতে কোনো সমস্যা হবে না।
অপরদিকে, এই সময়ে নির্বাচন দিলে সরকার ও আওয়ামী লীগের জন্য রাজনৈতিক ক্ষতির সম্ভাবনা রয়েছে বেশি। কারণ গত কয়েক বছর আওয়ামী লীগের কর্মকা-ে সাধারণ জনতার মাঝে একধরনের হতাশার ভাব দেখা দিয়েছে। বিগত জাতীয় নির্বাচনে সিলেটসহ দেশের ১৫১ টি সংসদীয় এলাকায় জনগণ ভোটাধিকার প্রয়োগ করতে না পারায় তাদের মাঝে ক্ষোভ বিরাজ করছে।
সিটি নির্বাচন হলে সেই ক্ষোভের বহিপ্রকাশ ঘটবে বলে মনে করছেন নগরবাসী। তাছাড়া সিলেট সিটি কর্পোরেশনের বর্তমান মেয়র বিএনপির। নির্বাচিত হওয়ার পর সিলেট সিটি কর্পোরেশনের ২৭টি ওয়ার্ডে বেশ কিছু দৃশ্যমান উন্নয়ন প্রকল্প বাস্তবায়ন হওয়ায় সমর্থন তার প্রতি বৃদ্ধি পেয়েছে। মামলা মোকাদ্দমা পেরিয়ে তিনি সিলেট সিটি কর্পোরেশনের রাস্তা-ঘাট বড় করাসহ বেশ কিছু ছড়া-নালা, খাল-বিল দখলমুক্ত করে পানি নিষ্কাশন এবং রাস্তাঘাটের উন্নয়ন করায় তার প্রতি নগরবাসীর সমর্থন বৃদ্ধি পেয়েছে। এমতাবস্থায় নির্বাচন দিয়ে সিলেট সিটি কপোরেশনের মেয়র পদ হাতছাড়া করতে চায় না আওয়ামী লীগ সরকার। একই অবস্থা বিরাজ করছে অন্যান্য সিটি কর্পোরশনে বিএনপি সমর্থিত মেয়র পদে আসীন ব্যক্তিদের মাঝেও।
এ বিষয়ে রাজনৈতিক বিশ্লেষক এবং স্থানীয় নির্বাচন বিশেষজ্ঞদের মতে, জাতীয় নির্বাচনের আগে স্থানীয় নির্বাচন দিয়ে জনরায় আওয়ামী লীগের বিপক্ষে যাক তা চায় না সরকার। তাদের টার্গেট জাতীয় নির্বাচন। বিশেষজ্ঞরা মনে করছেন, বর্তমান সিটি কর্পোরেশনের মেয়াদ শেষ হলে সিটির দায়িত্বে আসবেন প্রশাসক। আগামী জাতীয় নির্বাচনে বর্তমান সরকার জয়লাভ করলে তারা সুবিদামতো সময়ে নির্বাচন দেবে। তবে সবকিছু নির্ভর করছে নির্বাচন কমিশন ও সরকারের সদিচ্ছার উপর।
এদিকে, সিলেট সিটি কর্পোরেশন নির্বাচনকে কেন্দ্র করে ইতোমধ্যে দৌঁড়ঝাঁপ শুরু করেছেন সম্ভাব্য প্রার্থীরা। তবে এদের মধ্যে নতুন মুখ বেশি। বর্তমান কাউন্সিলররা সবদিক এবং বিষয় খেয়াল ও বিবেচনা করে পদক্ষেপ নেবে বলে জানান।

Developed by: