সর্বশেষ সংবাদ
ইকুয়েডরে সড়ক দুর্ঘটনায় ২৪ জন নিহত  » «   ইলেকট্রনিক ভোটিং মেশিন হ্যাক করা অত্যন্ত সহজ!  » «   সারা’র রুপে মুগ্ধ সবাই  » «   আবারও সিলেটে অনুষ্ঠিত হবে বঙ্গবন্ধু কাপ  » «   সিলেটে বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে শ্রদ্ধাঞ্জলি  » «   প্রতিদ্বন্দ্বি যখন যমজ বোন  » «   বিএনপি নির্বাচন বানচালের চক্রান্ত করছে : কাদের  » «   পঁচাত্তরে যেমন ছিল বাংলাদেশ  » «   চঞ্চল চৌধুরীর প্রেমে হাবুডুবু খাচ্ছেন জয়া!  » «   ওসমানী বিমানবন্দরে নারীর জুতা ও পেটের ভেতর থেকে স্বর্ণের বার উদ্ধার  » «   প্রামাণ্যচিত্র ‘বঙ্গবন্ধু বাংলার ধ্রুবতারা’  » «   ভারতের সাবেক স্পিকার সোমনাথ আর নেই  » «   শহিদুলের চিকিৎসার আদেশের বিরুদ্ধে রাষ্ট্রপক্ষের আবেদন খারিজ  » «   অদ্ভূত মিল!  » «   ‌’ঈদের পর পেঁয়াজের দাম কমবে’  » «  

তাহিরপুরে পণাতীর্থে ‘গঙ্গাস্নান ও বারুণী মেলা’ ১৪ মার্চ



LOVEপ্রান্ত ডেস্ক: আগামী ১৪ মার্চ বুধবার থেকে ১৬ মার্চ শনিবার পর্যন্ত তিন দিনব্যাপী সুনামগঞ্জের তাহিরপুরের রাজারগাঁও-এর শ্রীশ্রী অদ্বৈত জন্মধামে পণাতীর্থে বারুণী মেলা। ১৫ মার্চ ভোর ৫ টা থেকে বিকাল ৫ টা পর্যন্ত গঙ্গাস্নান হবে। প্রতিবছর চৈত্র মাসের মধুকৃষ্ণা ত্রয়োদশী তিথিতে এই গঙ্গাস্নান হয়।
তিন দিনব্যাপী এই গঙ্গাস্নান ও বারুণী মেলা উপলক্ষ্যে ভক্ত-পুণ্যার্থীদের নিরাপদ ও সুষ্ঠু পরিবেশে আসা-যাওয়া নিশ্চিত করতে নানা উদ্যোগ নিয়েছেন জেলা, উপজেলা প্রশাসন ও অদ্বৈত জন্মধাম পরিচালনা কমিটি। গঙ্গাস্নান ও বারুণী মেলায় আসা-যাওয়ার বিষয়ে বিভিন্ন যানবাহনের ভাড়া ও রাস্তা নির্ধারণসহ নানা বিষয়ে সবাইকে অবগতির জন্য ১০ মার্চ শনিবার দুপুরে সাংবাদিক সম্মেলন করেছেন শ্রীশ্রী অদ্বৈত জন্মধাম পরিচালনা কমিটি।
সুনামগঞ্জ শহরের শ্রীশ্রী কেন্দ্রীয় কালীবাড়ি নাট মন্দিরে অনুষ্ঠিত সাংবাদিক সম্মেলন – লিখিত বক্তব্য পাঠ করেন শ্রীশ্রী অদ্বৈত জন্মধাম পরিচালনা কমিটির সাধারণ সম্পাদক কানন বন্ধু রায়, নানা প্রশ্নের জবাব দেন সভাপতি করুণা সিন্ধু চৌধুরী বাবুল।
সাংবাদিক সম্মেলনে জানানো হয়, শ্রীশ্রী অদ্বৈত জন্মধামের পণাতীর্থে গঙ্গাস্নান ও বারুণী মেলার পাশাপাশি একই এলাকায় শাহ আরেফিন (রাঃ) এর মাজারে ওরস উদযাপন হয়। এতে লাখ লাখ ভক্ত ও পুন্যার্থীর আগমন ঘটে। তাই সাধারণ ভক্ত ও পুন্যার্থীদের আসা-যাওয়ার সুবিধার্থে ও ট্রাফিক ব্যবস্থা সুশৃঙ্খল রাখার জন্য ১৪ থেকে ১৬ মার্চ তিন দিন সুনামগঞ্জ শহরের নিকটবর্তী আব্দুজ জহুর সেতুর পূর্ব পাশ থেকে বাস, ট্রাক, কোচ, কোস্টার, কাভার্ড ভ্যান, লরি, ট্রলি, ট্রাক্টর চলাচল বন্ধ রাখার জন্য প্রশাসনের নিকট অনুরোধ জানানো হয়েছে। প্রশাসন এসব যানবাহন চলাচল বন্ধ রাখতে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থার আশ্বাস দিয়েছেন।
পাশাপাশি জেলা প্রশাসনের সাথে আলোচনা করে সুনামগঞ্জ শহর থেকে অদ্বৈত জন্ম ও শাহ আরেফিন (রা.) মাজারে আসা-যাওয়ার ভাড়া নির্ধারণ করা হয়েছে। নির্ধারিত ভাড়া হচ্ছে- মোটরসাইকেল জনপ্রতি ২০০ টাকা, সিএনজি জনপ্রতি ১৫০ টাকা, লেগুনা জনপ্রতি ১০০ টাকা ও অটো রিকশা জনপ্রতি ১২০ টাকা।
সুনামগঞ্জ থেকে বিশ্বম্ভরপুরের পলাশ-ধনপুর স্কুলের পাশ দিয়ে আনন্দবাজার হয়ে অদ্বৈত জন্মধাম ও শাহ আরেফিন (রা.) মাজারে যাওয়া যাবে। আবার শাহ আরেফিন (রা.) মাজার ও অদ্বৈত জন্মধাম থেকে মাছিমপুর-চিনাকান্দি-বাঘবেড়-চালবন হয়ে সুনামগঞ্জে আসতে হবে। সুনামগঞ্জ শহর থেকে যাদুকাটার পাড়ের অদ্বৈত মন্দির পর্যন্ত সড়কের প্রতিটি মোড়ে অদ্বৈত জন্মধাম পরিচালনা কমিটির পক্ষ থেকে বিলবোর্ড ও নির্দেশনা দেয়া হবে।
সাংবাদিক সম্মেলনে জানানো হয়, সাধারণ ভক্ত ও পুন্যার্থীদের আসা-যাওয়া নিরাপদ করতে ইতোমধ্যে জেলা প্রশাসনের ব্যবস্থাপনায় তীর্থযাত্রীদের পরিবহন ভাড়া, এক রাস্তায় যাওয়া-অন্য রাস্তায় আসা, ট্রাফিক ব্যবস্থার নিয়ন্ত্রণ, মেডিক্যাল টিম, ফায়ার সার্ভিস, আইন শৃংখলা রক্ষায় পুলিশ, র‌্যাব, বিজিবি ও আনসার ভিডিপির সদস্য ও স্বেচ্ছাসেবক থাকবে। প্রশাসন সব ধরনের সহযোগিতা করার আশ্বাস দিয়েছেন। সংবাদ সম্মেলনে ঐতিহ্যবাহী এই উৎসব সম্পন্ন করতে সকলের সহযোগিতা চেয়েছেন শ্রীশ্রী অদ্বৈত জন্মধাম পরিচালনা কমিটি।
সাংবাদিক সম্মেলনে উপস্থিত ছিলেন- জেলা হিন্দু বৌদ্ধ খ্রিস্টান ঐক্য পরিষদের সভাপতি দীপক ঘোষ, জেলা পূজা উদযাপন পরিষদের সভাপতি নৃপেশ তালুকদার নানু, শ্রীশ্রী অদ্বৈত জন্মধাম পরিচালনা কমিটির উপদেষ্টা দৈনিক সুনামকণ্ঠের সম্পাদক বিজন সেন রায়, উপদেষ্টা দৈনিক সুনামগঞ্জের খবরের সম্পাদক পঙ্কজ কান্তি দে, জগদীশ বিশ্বাস, শ্রীশ্রী অদ্বৈত জন্মধাম পরিচালনা কমিটির সহ সভাপতি জয়ন্ত রায়, প্রবীর রায়, ভানু পাল, যুগ্ম সম্পাদক কেশব রায়, জেলা পূজা উদযাপন পরিষদের সাধারণ সম্পাদক বিমল কুমার বণিক, সমাজ কল্যাণ সম্পাদক বাবুল পুরকায়স্থ, পূজা সম্পাদক স্বপন কুমার দাস, কেন্দ্রীয় দুর্গাবাড়ি পরিচালনা কমিটির সভাপতি বিকাশ রঞ্জন চৌধুরী ভানু, সাধারণ সম্পাদক সুবিমল চক্রবর্তী চন্দন, শ্মশান ঘাট পরিচালনা কমিটির প্রতিষ্ঠাতা সভাপতি রবীন্দ্র চন্দ্র দেব, শ্রী শ্রী জগন্নাথ জিউড় মন্দির পরিচালনা কমিটির সাধারণ সম্পাদক বিজয় তালুকদার বিজু, সাবেক সাধারণ সম্পাদক চন্দন রায় প্রমুখ।

Developed by: