সর্বশেষ সংবাদ
ফেঞ্চুগঞ্জ ইউনিয়ন ছাত্রদলের কমিটি : ঘোষণা উপজেলার, বাতিল জেলার  » «   ক্রীড়া সংগঠক আব্দুল কাদিরের মায়ের ইন্তেকাল  » «   রণবীর-দীপিকা বিয়ে নভেম্বরে?  » «   যাদুকর ম্যারাডোনার পায়ের অবস্থা করুণ  » «   একটু আগেবাগেই শীতের আগমণ  » «   চট্টগ্রামে আইয়ুব বাচ্চুর জানাযা বাদ আছর  » «   রাবণ পোড়ানো দর্শনকারী ভিড়ের উপর দিয়ে ছুটে গেলো ট্রেন : নিহত ৬০  » «   গোলাপঞ্জে ফায়ার সার্ভিস ও সিভিল ডিফেন্স স্টেশন উদ্বোধন করলেন শিক্ষামন্ত্রী  » «   বিসর্জনের দিন সিলেটে আসনে ‘দেবী’  » «   বিভিন্ন পূজা মণ্ডপ পরিদর্শনে মেয়র আরিফ  » «   সিলেটে স্বয়ংক্রিয় কৃষি-আবহাওয়া স্টেশন স্থাপিত  » «   শীতে ত্বক সজীব রাখতে শাক-সবজি খান  » «   সিলেট ওসমানী বিমানবন্দর সংস্কার হচ্ছে প্রায় ৪ কোটি টাকা ব্যয়ে  » «   কোম্পানীগঞ্জে টাস্কফোর্সের অভিযানে পেলোডার মেশিন জব্দ  » «   ডিজিটাল নিরাপত্তা আইন সংশোধনে সরকারকে নোটিশ  » «  

হামলাকারী ফয়জুর ওসমানী হাসপাতালে চিকিৎসাধীন : চলছে তদন্ত



54237
স্টাফ রিপোর্টার
অধ্যাপক ড. মুহম্মদ জাফর ইকবাল দেশের বিশিষ্ট লেখক ও শিক্ষাবিদ হিসেবে খ্যাত। প্রগতিশীল আন্দোলনের অগ্রভাগেই থাকেন জাফর ইকবাল। দেশে ঘটে যাওয়া সমসাময়িক নানা অন্যায়, অনিয়মের বিরুদ্ধেও সোচ্চার শাহজালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের এই অধ্যাপক। সর্বজন শ্রদ্ধেয় জাফর ইকবালকে হত্যার চেষ্টায় ছুরিকাঘাত করার পরও যেন নির্বিকার ফয়জুর রহমান ওরফে ফয়জুল ওরফে শফিকুর। এদিকে, ফয়জুর রহমানের সাথে জঙ্গিগোষ্ঠীর সম্পৃক্ততার বিষয়টি খতিয়ে দেখছে আইনশৃঙ্খলা বাহিনী। গত শনিবার বিকেলে শাবি ক্যাম্পাসে জাফর ইকবালকে ছুরিকাঘাত করার পরপরই পুলিশ ও শিক্ষার্থীদের হাতে আটক হন ফয়জুর রহমান। শিক্ষার্থীরা তাকে গণপিটুনি দেয়। এতে গুরুতর আহত হন ফয়জুর।
ঘটনার পর শিক্ষার্থীরে রোষ থেকে বাঁচাতে ফয়জুরকে শাবির একাডেমিক ভবন-২ এ নিয়ে আটকে রাখে পুলিশ। ওইদিন রাত সোয়া নয়টার দিকে র‌্যাবের বেশকিছু সংখ্যক সদস্য শাবি ক্যাম্পাসে গিয়ে কড়া নিরাপত্তায় ফয়জুরকে বের করে আনেন। পরে তাকে জালালাবাদ সেনানিবাস্থ সামরিক হাসপাতালে ভর্তি করা হয়।
সেখানে কিছুটা সুস্থ হওয়ার রবিবার বিকাল পৌনে পাঁচটার দিকে ফয়জুর রহমানকে পুলিশের কাছে হস্তান্তর করে র‌্যাব। ফয়জুরকে র‌্যাবের কাছ থেকে গ্রহণ করে মহানগর পুলিশের জ্যেষ্ঠ সহকারি কমিশনার সাদেক কাওসার দস্তগির ও কোতোয়ালী থানার ওসি গৌছুল হোসেন। পরে কড়া পাহারায় ফয়জুরকে এমএজি ওসমানী মেডিকেল কলেজ ও হাসপাতালে ভর্তি করা হয়।
র‌্যাব যখন ফয়জুরকে পুলিশের কাছে হস্তান্তর করে এবং পরবর্তীতে তাকে যখন পুলিশ হাসপাতালে ভর্তি করে, তখন তাকে নির্বিকার থাকতে দেখা গেছে। জাফর ইকবালকে হামলার ঘটনায় তিনি (ফয়জুর) যে পুলিশের হাতে বন্দি, তার বিরুদ্ধে মামলা হয়েছে এবং সামনে দীর্ঘদিন কারাবন্দি থাকতে হবে-এসব নিয়ে ফয়জুরের মধ্যে কোনো শঙ্কার ছায়া দেখা যায়নি। অন্তত, ফয়জুরের চেহারা দেখে এসব বিষয় নিয়ে তার মধ্যে কোনো ভয়ডর কাজ করছে বলে মনে হয়নি।
ফয়জুরকে হাসপাতালে ভর্তির সময় ঘটনাস্থলে থাকা এক পুলিশ কর্মকর্তা নাম প্রকাশ না করার শর্তে বলেন, ‘ফয়জুরকে নির্বিকার দেখা গেছে। মনে হয়েছে, যা ঘটেছে, তা নিয়ে সে চিন্তিত নয়।’
সংশ্লিষ্ট সূত্রে জানা গেছে, সুস্থ হওয়ার পরই ফয়জুরকে আদালতে হাজির করা হবে। এরপর আইন অনুযায়ী চলবে তার বিরুদ্ধে মামলার কার্যক্রম। তবে জাফর ইকবালের উপর হামলার আলোচিত ঘটনাকে বিভিন্ন দৃষ্টিকোণ থেকে তদন্ত করা হবে বলে জানা গেছে।
র‌্যাব-৯ এর অধিনায়ক লেফটেন্যান্ট কর্ণেল আলী হায়দার আজাদ জানিয়েছেন, ঘটনার মূল তদন্ত করবে পুলিশ। তবে ছায়া তদন্তে থাকবে র‌্যাব।
সিলেট মহানগর পুলিশের অতিরিক্ত উপ-কমিশনার আব্দুল ওয়াহাব  বলেন, ‘ফয়জুর সুস্থ হওয়ামাত্রই আমরা তাকে আদালতে হাজির করবো।’
এদিকে, ফয়জুর রহমান জঙ্গিবাদে বিশ্বাসী বলে জানিয়েছেন র‌্যাব-৯ এর অধিনায়ক লেফটেন্যান্ট কর্ণেল আলী হায়দার আজাদ। তবে ফয়জুরের সাথে দেশের বা বিদেশের কোনো জঙ্গিগোষ্ঠীর যোগাযোগ ছিল কিনা কিংবা ঘটনার আগপর্যন্ত তাকে কোনো জঙ্গিগোষ্ঠী ‘গাইড’ করেছে কিনা, এসব বিষয়ে দৃষ্টিপাত করছেন আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর সদস্যরা।
মহানগর পুলিশের অতিরিক্ত উপ-কমিশনার আব্দুল ওয়াহাব বলেন, ‘ফয়জুরের সাথে জঙ্গিগোষ্ঠীর সম্পৃক্ততা আছে কিনা, তা আমরা খতিয়ে দেখছি। এ ব্যাপারে তদন্ত চলছে।’

Developed by: