সর্বশেষ সংবাদ
খালেদার চিকিৎসা বিষয়ক রিটের শুনানি ১ অক্টোবর  » «   হবিগেঞ্জ প্রবাসীর বাড়িতে ডাকাতি : হামলায় নারী আহত  » «   শিল্পা শেঠি বৈষম্যের শিকার!  » «   মেসি’র বিস্ময়কর কাণ্ড  » «   মাছের পেটে ৬১৪ পিস ইয়াবা!  » «   সিলেটে বসছে আন্তর্জাতিক ফুটবলের আসর  » «   নিজের ছবির নায়িকা রিয়া চক্রবর্তীর সঙ্গে মহেশ ভাটরিয়া চক্রবর্তী ঘনিষ্ঠ!  » «   এএফসি অনূর্ধ্ব-১৬ নারী চ্যাম্পিয়নশিপ : ভিয়েতনামকে হারিয়ে গ্রুপসেরা বাংলাদেশের মেয়েরা  » «   বিসিবির প্রধান নির্বাচক নান্নুর বাসায় চুরি  » «   ঢাকায় সামার ওপেন ব্যাডমিন্টন প্রতিযোগিতার সুপার সিক্সটিন পর্ব : সিলেটী-সিলেটী লড়াই  » «   আটক চার ছাত্রদল নেতার বিরুদ্ধে রিমান্ড আবেদন নামঞ্জুর  » «   জগন্নাথপুরের রুহুল আমিন ইতালিতে দুর্বৃত্তদের হামলায় নিহত  » «   জিয়াদের পরিবারকে খুঁজছে সিলেট কোতোয়ালি পুলিশ  » «   বন্য হাতির আক্রমণে কুলাউড়ার যুবদল নেতার মৃত্যু  » «   এ কী বললেন পপি!!!  » «  

সোমা জঙ্গিবাদে উদ্বুদ্ধ হন অনলাইনে



sp1প্রান্তডস্কে:মোমেনা সোমা অনলাইনের মাধ্যমে জঙ্গিবাদে উদ্বুদ্ধ হন। অনলাইনে আইএস ও আল কায়েদাসহ জঙ্গি সংশ্লিষ্ট উপকরণ দেখে তাতে উদ্বুদ্ধ হন। আর তিনি অস্ট্রেলিয়ায় পড়তে যাওয়ার আগে তার ছোট বোন আসমাউল হুসনা সুমনাকে জঙ্গিবাদে উদ্বুদ্ধ করেন। গতকাল দুপুরে ঢাকা মহানগর পুলিশের (ডিএমপি) মিডিয়া সেন্টারে এসব তথ্য জানান কাউন্টার টেররিজম অ্যান্ড ট্রান্সন্যাশনাল ক্রাইম (সিটিটিসি) ইউনিটের প্রধান মনিরুল ইসলাম। সংবাদ সম্মেলনে মনিরুল ইসলাম বলেন, গত কয়েকদিন আগে অস্ট্রেলিয়ায় বাংলাদেশ থেকে যাওয়া মোমেনা সোমা নামের এক শিক্ষার্থীকে গ্রেপ্তার করে সেখানকার পুলিশ। সে সূত্র ধরে তার মিরপুরের বাসায় আমরা অভিযান চালাই।
সেখানে থাকা তার ছোট বোনকে জিজ্ঞাসাবাদ করা হয়। সে নিজেও জঙ্গিবাদে জড়ায়। পরে তাকে গ্রেপ্তার করা হয়। গ্রেপ্তার হওয়া আসমাউল হুসনাকে জিজ্ঞাসাবাদে বিভিন্ন ওপেনসোর্স এবং অস্ট্রেলিয়ান ফেডারেল পুলিশের সঙ্গে আনুষ্ঠানিক ও অনানুষ্ঠানিকভাবে কথা বলে আমরা এসব তথ্য পেয়েছি। মোমেনা পড়াশোনার জন্য ১লা ফেব্রুয়ারি অস্ট্রেলিয়া যান। এর আগে তুরস্কের একটি বিশ্ববিদ্যালয়ে পড়াশোনার জন্য যেতে চেয়েছিলেন। কিন্তু ভিসা না পাওয়ায় পরে অস্ট্রেলিয়া যান। অস্ট্রেলিয়ায় যাওয়ার আগে সে তার ছোট বোন আসমাউল হুসনাকে বলেছিল, সেখানে গিয়ে একটা অঘটন ঘটাবে। যদি বাংলাদেশের পুলিশ তার বাসায় আসে সেখানেও যেন অন্তত একজন পুলিশকে হত্যা করে সে শহীদ হয়। মনিরুল ইসলাম আরো বলেন, ২০১৫ সালের দিকে মোমেনা সোমা নর্থ সাউথ বিশ্ববিদ্যালয়ে পড়াশোনা করতো। সে সময় তার মা মারা যান। এরপর থেকে সে নিজেকে একটু গুটিয়ে নেয়। ওই সময় থেকে সে জঙ্গিবাদে জড়িয়ে পড়ে।
প্রসঙ্গত, গত ৯ই ফেব্রুয়ারি অস্ট্রেলিয়ার মেলবোর্নে এক ব্যক্তিকে ছুরিকাঘাতের অভিযোগে বাংলাদেশি শিক্ষার্থী মোমেনা সোমাকে (২৪) গ্রেপ্তার করে পুলিশ। সেদেশের পুলিশ জানায়, মোমেনা আইএসের মতাদর্শে উদ্বুদ্ধ হয়ে সন্ত্রাসী হামলা চালিয়েছে। এরপর পুলিশের কাউন্টার টেররিজম ইউনিট সোমার বিষয়ে খোঁজ নিতে গত ১১ই ফেব্রুয়ারি রাতে রাজধানীর কাজীপাড়ার তার বাসায় যায়। সেখান থেকে আসমাউল হুসনা সুমনাকে গ্রেপ্তার করা হয়।
শিগগিরই হলি আর্টিজান মামলার চার্জশিট: এদিকে সংবাদ সম্মেলনের পর সাংবাদিকদের সঙ্গে আলাপকালে হলি আর্টিজান জঙ্গি হামলা মামলার অভিযোগপত্র (চার্জশিট) শিগগিরই দেয়া হবে বলে জানিয়েছেন সিটিটিসি প্রধান মনিরুল ইসলাম। গতকাল দুপুরে ডিএমপি মিডিয়া সেন্টারে সাংবাদিকদের সঙ্গে আলাপকালে তিনি এ কথা বলেন। এ সময় মনিরুল ইসলাম বলেন, হলি আর্টিজান হামলার ঘটনার তদন্ত একেবারেই শেষ পর্যায়ে। যেকোনো দিন এই মামলার চার্জশিট দেয়া হতে পারে। মামলার চার্জশিট তৈরি হলে সংবাদ সম্মেলনের মাধ্যমে জানানো হবে।

Developed by: