সর্বশেষ সংবাদ
ঈদের ছবি নিয়ে হিসাব-নিকাশ এখনো মিলছে না  » «   ১১ প্রশ্নে ৮২ ভুল!  » «   মেয়েদের সাফ অনূর্ধ্ব-১৫ ফুটবল : আরেকটা হাতছানি  » «   ২ সেপ্টেম্বর শাবিতে ভর্তির আবেদন শুরু  » «   এ্যাকশনে পুননির্বাচিত আরিফ  » «   ঈদের আগে খালেদা জিয়ার মুক্তি দাবি করেছে বিএনপি  » «   সমকাল সম্পাদককে শেষ শ্রদ্ধা  » «   অনবদ্য তামিম ইকবাল  » «   ওরা এখনো নজরকাড়া  » «   শাবিপ্রবি’র হল বন্ধ  » «   সিলেটে ২১ আগষ্ট থেকে ৫ দিন বন্ধ বিদ্যুতের প্রিপেইড মিটার রিচার্জ  » «   ইকুয়েডরে সড়ক দুর্ঘটনায় ২৪ জন নিহত  » «   ইলেকট্রনিক ভোটিং মেশিন হ্যাক করা অত্যন্ত সহজ!  » «   সারা’র রুপে মুগ্ধ সবাই  » «   আবারও সিলেটে অনুষ্ঠিত হবে বঙ্গবন্ধু কাপ  » «  

নগরীতে প্রশ্ন ফাঁসে জড়িত সন্দেহে আটক ১



31junস্টাফরিপোর্টার: নগরীর আম্বরখানায় প্রশ্নপত্র ফাঁসে জড়িত সন্দেহে দেলোয়ার হোসেন নামের এক যুবককে আটক করেছে গোয়েন্দা সংস্থার সদস্যরা। আটককৃত দেলোয়ার সিলেট মদন মোহন কলেজের এইচএসসি দ্বিতীয় বর্ষের ব্যবসায় শিক্ষা বিভাগের ছাত্র।শনিবার (১০ ফেব্রুয়ারি) সকালে নগরীর হাউজিং এস্টেট এলাকার আম্বরখানা বালিকা উচ্চ বিদ্যালয় ও কলেজের সামনে থেকে তাকে আটক করা হয়। আটকের পর দেলোয়ারকে পুলিশের কাছে হস্তান্তর করে ওই গোয়েন্দা সংস্থা। দেলোয়ার কিশোরগঞ্জ জেলার কালিমপুর উপজেলার হুমায়ুন কবিরের পুত্র।
পুলিশ সূত্রে জানা যায়, পরীক্ষার আগে মোবাইল ফোনে এসএসসির প্রশ্নপত্র পাওয়ায় এক কলেজ ছাত্রকে আটক করা হয়েছে। পরে অনুষ্ঠিত পরীক্ষা শেষে প্রশ্নপত্রের সাথে মোবাইলে থাকা গণিত বহুনির্বাচনী (কোড-১০৯) পরীক্ষার প্রশ্নপত্রের হুবহু মিল পাওয়া যায়। আটকের পর দেলোয়ার স্বীকার করে ভৈরব থেকে তার এক চাচা প্রশ্নপত্রটি মোবাইলে দিয়েছেন। নগরীর আম্বরখানা বালিকা উচ্চ বিদ্যালয় কেন্দ্রে শরীফুল ইসলাম নামে তার এক ভাতিজা পরীক্ষা দিচ্ছিলো বলেও সে জানায় দেলোয়ার।আম্বরখানা ফাঁড়ির ইনচার্জ উপ-পরিদর্শক (এসআই) দেবাশীষ দেব এ তথ্য নিশ্চিত করে বলেন, আটক দেলোয়ার হোসেনের বিরুদ্ধে থানায় মামলা দায়েরের প্রস্তুতি চলছে।

Developed by: